মাঠে ময়দানে
আপনার ডিভাইস মিডিয়া প্লেব্যাক সমর্থন করে না

ইউরোপের চ্যাম্পিয়ন্স লীগের খেলা শুরু হচ্ছে মঙ্গলবার

পৃথিবীর এক নম্বর ক্লাব ফুটবল টুর্নামেন্ট ইউরোপের চ্যাম্পিয়ন্স লীগের গ্রুপ পর্বের খেলা শুরু হচ্ছে মঙ্গলবার থেকেই ।

এবারের চ্যাম্পিয়ন লীগে যে ভাবে ড্র হয়েছে তাতে মনে হচ্ছে যে এবার ঠিক কোন 'গ্রুপ অব ডেথ' নেই। গতবারের চ্যাম্পিয়ন রিয়াল মাদ্রিদ, রানার্স আপ এটলেটিকো, বার্সেলোনা - বা উরোপের অন্যন্য বড় দল যেমন বায়ার্ন মিউনিখ, জুভেন্টাস, ম্যানচেস্টার সিটি, প্যারিস সঁ জারমেইন, বা আর্সেনাল - এদের সবারই মোটামুটি সহজেই গ্রুপ পর্ব সহজেই পেরিয়ে যাবার সম্ভাবনা প্রবল।

এবার টুর্নামেন্টে চার ইংলিশ ক্লাবের মধ্যে আছে ম্যানচেস্টার সিটি, তাদের প্রথম খেলা বরুসিয়া মনচেনগ্ল্যাডবাখএর বিরুদ্ধে। আর্সেনাল খেলবে প্যারিস সঁ জারমেইনএর বিরুদ্ধে।

টটেনহ্যাম প্রথম খেলবে মোনাকোর বিরুদ্ধে। আর লেস্টারের প্রথম খেলা ব্রুজের বিরুদ্ধে।

ইউরোপের ফুটবল বিশ্লেষক ফিল মিনশুল বলছিলেন, ইউরোপিয়ান ফুটবলে গত কয়েক বছরে রিয়াল মাদ্রিদ এবং বার্সেলোনা শিরোপা জিতেছে, এটলেটিকো দুবার ফাইনাল খেলেছে, বায়ার্ন মিউনিখ শিরোপা জেতার কাছাকাছি এসেছে। তাই এরাই এখন বড় শক্তি।

ছবির কপিরাইট Getty Images
Image caption চ্যাম্পিয়ন্স লীগ ট্রফি নিয়ে আনন্দ মিছিল

ম্যানচেস্টার সিটি এবং অন্য দলগুলো সম্ভবত এখন আছে এদের পরের কাতারে। যদিও তাদের নতুন ম্যানেজার পেপ গার্দিওলা শুধু লীগ শিরোপা নয়, নিশ্চয়ই চ্যাম্পিয়ন্স লীগও জিততে চান, এবং দেখাতে চান যে তিনি বার্সেলোনা ছাড়া অন্য দল নিয়েও চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জিততে পারেন - যা তিনি বায়ার্নকে নিয়ে পারেন নি।

ফিল মিনশুলের মত হলো, বার্সেলোনার ক্ষেত্রে একটা বড় প্রশ্ন হচ্ছে তাদের তারকা খেলোয়াড় লিওনেল মেসির ফিটনেস - কারণ তিনি সম্প্রতি বেশ কিছু ইনজুরিতে ভুগেছেন। তবে মেসি এবং অন্য দুই স্ট্রাইকার লুইস সুয়ারেজ এবং নেইমারকে মিলিয়ে তাদের আক্রমণভাগ এতই শক্তিশালী - যে এর জুড়ি পৃথিবীর আর কোনো দলে আছে কিনা সন্দেহ।

এটলেটিকো মাদ্রিদ এবারো ইউরোপিয়ান ফুটবলে এক বড় শক্তি হয়ে থাকবে। তাদের ম্যানেজার দিয়েগো সিমিওনির সেই গুণ আছে যা দিয়ে তিনি দলে দারুণ টিম স্পিরিট গড়ে তুলতে পারেন। তাদের স্ট্রাইকার এন্টানিও গ্রিজম্যানকে আমরা ইউরোতে দারুণ খেলতে দেখেছি। রিয়াল মাদ্রিদ, এটলেটিকো এবং বার্সেলোনা - এই তিনটির মধ্যে দুটি দল যদি এবারো ফাইনাল খেলে - তাহলে আমি অবাক হবে না।

বায়ার্ন মিউনিখ , ম্যানচেস্টার সিটি, পিএসজি, আর্সেনাল, বা বেনফিকা - এই দলগুলো রয়েছে এদের পরই। তারা এবারো চ্যাম্পিয়ন্স লিগে শিরোপার লড়াইয়ে শক্তিধর প্রতিপক্ষ হবে নিশ্চিতভাবেই।