নিউইয়র্কের বিস্ফোরণ: ইচ্ছাকৃত, তবে সন্ত্রাসী গোষ্ঠী জড়িত থাকার প্রমাণ মেলেনি

ছবির কপিরাইট Getty Images
Image caption নিউইয়র্কে বিস্ফোরণের পর নিরাপত্তা বাহিনীর তৎপরতা

যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক শহরে ম্যানহাটান এলাকায় এক বিস্ফোরণে ১৯ জন লোক আহত হবার পর শহরের মেয়র বিল দে ব্লাসিও বলেছেন, ওই বিস্ফোরণ ইচ্ছাকৃতভাবেই ঘটানো হয়েছে - তবে এর সাথে সন্ত্রাসী কোন গোষ্ঠী জড়িত থাকার প্রমাণ এখনো পাওয়া যায়নি।

শনিবার রাতে স্থানীয় সময় ন'টার দিকে ম্যানহাটানের জনাকীর্ণ চেলসি এলাকায় ওই বিস্ফোরণ ঘটে।

পুলিশ এর পর কাছাকাছি জায়গা থেকে একটি সন্দেহজনক বস্তু উদ্ধার করে। বিবিসির সংবাদদাতা জানিয়েছেন এটি ছিল একটি প্রেশার কুকার - যার সাথে কিছু তার এবং একটি মোবাইল ফোন সংযুক্ত ছিল।

এই ধরণের জিনিস ২০১৩ সালে বোস্টন শহরের বোমা হামলার সময় দেখা গিয়েছিল - যাতে তিন জন নিহত এবং বহু আহত হয়। ২০১০ সালে নিউইয়র্কে টাইমস স্কোয়ারে একটি ব্যর্থ জিহাদি আক্রমণেও প্রেশার কুকার দিয়ে তৈরি বোমা ব্যবহৃত হয়েছিল।

অবশ্য আমেরিকার দক্ষিণপন্থী গ্রুপগুলোও এধরণের বোমা ব্যবহার করে থাকে এবং এটা বানানোর পদ্ধতি ইন্টারনেটে পাওয়া যায়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন বিকট আওয়াজ করে হওয়া এই বিস্ফোরণের শব্দে তাদের কানে তালা লেগে গিয়েছিল।

আহতদের মধ্যে ২৪ জনকে অ্যাম্বুলেন্সে করে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

আহতদের মধ্যে একজনের অবস্থা গুরুতর, তবে বাকিদের আঘাত সামান্য বলে বলা হয়েছে।

নিউইয়র্কের মেয়র বলেছেন, এ আক্রমণ শহরের মানুষকে ভীত করতে পারবে না।