শুল্ক ফাঁকির দায়ে জাতিসংঘ কর্মকর্তার বিক্রি করা গাড়ি আটক

ছবির কপিরাইট JOEL SAGET/ Getty
Image caption মিৎসুবিসি পাজেরো। জাতিসংঘ কর্মকর্তার বিক্রি করে যাওয়া এরকম একটি গাড়ি আটক করা হয়েছে

বাংলাদেশে জাতিসংঘ উন্নয়ন সংস্থার (ইউএনডিপি) সাবেক এক প্রধানের বিক্রি করা একটি গাড়ি শুল্ক গোয়েন্দারা আটক করেছে।

শুল্ক গোয়েন্দা বিভাগের কর্মকর্তা সাইফুর রহমান লিখিত এক বিবৃতিতে জানিয়েছেন, জাতিসংঘের ঐ কর্মকর্তা বিশেষ সুবিধাভোগী হিসাবে গাড়িটি কিনলেও যাওয়ার আগে শুল্ক-কর না দিয়েই গাড়িটি একজন বাংলাদেশিকে বিক্রি করে যান।

এ অভিযোগের ব্যাপারে ইউএনডিপি'র ঢাকা অফিসের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও, তা সম্ভব হয়নি।

বর্তমান শুল্ক আইনে বিদেশী কূটনীতিকরা ব্যক্তিগত ব্যবহারের জন্য বিনা শুল্কে গাড়ি আমদানি করতে পারেন। কমপক্ষে তিন বছর রেখে ঐসব গাড়ি বিক্রি করা যায়, কিন্তু তার জন্য তার জন্য শুল্ক বা কর শোধ করতে হয়।

ইউএনডিপি কর্মকর্তার মিৎসুবিসি পাজেরো গাড়িটি গতকাল (সোমবার) ঢাকার উত্তরা এলাকা থেকে আটক করা হয়। শুল্ক-কর সহ গাড়িটির দাম এক কোটি টাকার মত।

শুল্ক বিভাগের বিবৃতিতে বলা হয়েছে বিদেশী কূটনীতিক বা 'প্রিভিলেজড পার্সনরা' বেআইনিভাবে তাদের শুল্কমুক্ত গাড়ি বিক্রি বা হস্তান্তর করেন বলে বিভিন্ন সময় অভিযোগ পাওয়া যায়।

এই প্রথম সে ধরণের একটি গাড়ি আটক করা হলো।

শুল্ক বিভাগ বলছে কূটনীতিকদের পক্ষ থেকে বেআইনিভাবে বিক্রি করা এরকম আরো গাড়ি রয়েছে কিনা তা তারা খুঁজে বের করার চেষ্টা করছেন।