ইসরাইলকে বর্ণবৈষম্যবাদী রাষ্ট্র বলেছে জাতিসংঘের একটি কমিশন

  • ১৬ মার্চ ২০১৭
ছবির কপিরাইট EPA
Image caption প্রতিবেদনটি প্রকাশের পর ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে ইসরাইল।

ইসরাইলকে একটি বর্ণবৈষম্যবাদী রাষ্ট্র হিসেবে বর্ণনা করেছে জাতিসংঘের একটি কমিশন।

এই কমিশন এক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে যাতে ইসরাইল রাষ্ট্রকে এমন আখ্যা দেয়া হয়েছে।

প্রতিবেদনটি প্রকাশের পর তাতে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে ইসরাইল। আর যুক্তরাষ্ট্র তা প্রত্যাহারের দাবি জানিয়েছে।

বিভিন্ন সময়ে আগেও ইসরাইলকে এই সমালোচনা শুনতে হয়েছে যে তারা একটি বর্ণবৈষম্যবাদী রাষ্ট্র।

তবে এই প্রথমবারের মতো জাতিসংঘের কোন সংস্থা ইসরাইলকে বর্ণবৈষম্যবাদী রাষ্ট্র হিসেবে আখ্যা দিলো।

জাতিসংঘের পশ্চিম এশিয়া বিষয়ক অর্থনৈতিক ও সামাজিক কমিশনের প্রতিবেদনে এমন বলা হয়েছে।

সংস্থাটি বলেছে ইসরাইল, ফিলিস্তিনি জনগণের উপর এক ধরনের বর্ণবৈষম্যমূলক শাসন ব্যবস্থা কায়েম করেছে।

কমিশনের প্রধান রাইমা খালাফ বলেছেন এই প্রতিবেদনে স্পষ্ট করে আরো বলা হয়েছে যে ইসরাইল ফিলিস্তিনি জনগণের উপর নিপীড়ন চালাচ্ছে।

পশ্চিম এশিয়ার ১৮ টি আরব দেশ নিয়ে গঠিত এই কমিশন।

মিজ খালাফ জানিয়েছেন সদস্য দেশগুলোর অনুরোধে প্রতিবেদনটি প্রস্তুত করা হয়েছে।

যা প্রকাশের পর ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে ইসরাইল।

দেশটির সরকার বলছে মধ্যপ্রাচ্যে তারাই একমাত্র গণতান্ত্রিক দেশ এবং এই প্রতিবেদনের মাধ্যমে তাদের এই অবস্থানকে ক্ষুণ্ণ করার চেষ্টা চালানো হচ্ছে।

যাকে নাৎসি কায়দায় অপপ্রচার বলে উল্লেখ করেছে ইসরাইল।

অন্যদিকে যুক্তরাষ্ট্র এই প্রতিবেদন প্রত্যাহারের দাবি জানিয়েছে।

তবে জাতিসংঘ সদর দপ্তর থেকে বলা হচ্ছে এমন রিপোর্ট প্রকাশের আগে তাদের সাথে পরামর্শ করা হয়নি।

জাতিসংঘের একজন মুখপাত্র জানিয়েছেন এই প্রতিবেদন মহাসচিব আন্তোনিয় গুতেরেসের মতামতের প্রতিফলন নয়।