রাজশাহীতে মালদ্বীপের মডেলের মৃত্যু, সহপাঠীর বিরুদ্ধে হত্যা মামলা দায়ের

  • ১০ এপ্রিল ২০১৭
ছবির কপিরাইট RAUDHA ATHIF FACBOOK
Image caption লেখাপড়ার পাশাপাশি রাউধা আতিফ ছিলেন একজন আন্তর্জাতিক মডেল।

বাংলাদেশের রাজশাহীতে মালদ্বীপের এক মডেলের মৃত্যুর ঘটনায় আজ একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন তার বাবা।

এর আগে প্রাথমিকভাবে এই মৃত্যুকে আত্মহত্যা বলে ধারনা করছিলো পুলিশ।

রাজশাহীতে ইসলামি ব্যাংক মেডিকেল কলেজের দ্বিতীয় বর্ষে পড়াশোনা করছিলেন রাউধা আতিফ।

সেখানে ছাত্রী নিবাস থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছিলো।

তার বাবা মোহাম্মদ আতিফ মামলাটি দায়ের করেন যিনি এই ঘটনার পর থেকে বাংলাদেশেই আছেন।

তার আইনজীবীদের একজন আব্দুল মালেক বলছেন, মামলাটি করা হয়েছে তার এক সহপাঠীর বিরুদ্ধে।

আব্দুল মালেক আরো জানিয়েছেন তারা এই ঘটনায় আরো কিছু অসংগতি দেখেতে পেয়েছেন সেগুলো মামলার কাগজপত্রে উল্লেখ করা হয়েছে।

সে সম্পর্কে তিনি বলেন, "রাউধা আতিফকে তার মৃত্যুর সাত দিন আগে ঐ সহপাঠী জুস খেতে দিয়েছিলেন। যার গ্লাসে তিনি একটা ঔষধ পান। সেই কথা রাউধা তার মায়ের সাথে শেয়ার করেছিলেন"

এছাড়া তিনি আরো বলেন, "ভবনে সবসময় সিসিটিভি ক্যামেরা কাজ করে কিন্তু ঘটনার দিন রাত থেকে সকাল পর্যন্ত সেটি কাজ করছিলো না বলে আমরা জানতে পেরেছি"

রাউধা আতিফের বয়স হয়েছিলো কুড়ি বছর।

তিনি লেখাপড়ার পাশাপাশি ছিলেন একজন আন্তর্জাতিক মডেল।

বিখ্যাত আন্তর্জাতিক ফ্যাশন পত্রিকা 'ভোগ ইন্ডিয়া'র নবম বর্ষপূর্তি সংখ্যার প্রচ্ছদে মডেল হিসেবে তার ছবি ছাপা হয়।