হোটেলের ‘একঘেঁয়েমি' কাটাতে ফেসবুক লাইভে তাসকিন

. ছবির কপিরাইট Facebook (Taskin Ahmed)
Image caption বার্মিংহামের হোটেল রুম থেকে ফেসবুক লাইভ করছেন তাসকিন আহমেদ

বার্মিংহামের হোটেল রুম থেকে হঠাৎ ফেসবুকে লাইভে এসে বাংলাদেশের বোলিং তারকা তাসকিন আহমেদ বৃহস্পতিবারের চ্যাপিয়নস ট্রফির সেমিফাইনাল ম্যাচের জন্য ভক্তদের শুভকামনা চেয়েছেন।

"হোটেলে বোরড হচ্ছিলাম, তাই ভাবলাম আপনাদের সাথে কথা বলি।"

তাসকিন বলেন, "সেমিইনালে যাওয়া বড় একটা অ্যাচিভমেন্ট (অর্জন), ইনশাল্লাহ ভালো কিছু হবে, দোয়া করবেন।"

বৃহস্পতিবার বার্মিংহামে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ ভারত।

ভক্তদের একের পর এক প্রশ্নের উত্তরে তাসকিন আহমেদ তাদের আশ্বস্ত করেন তারা তাদের শ্রেষ্ঠটা দেওয়ার চেষ্টা করবেন।

"আমরা সবসময়ই নিজেদের বেস্টটা দেওয়ার চেষ্টা করি.. সবসময় মনে রাখি আমার দেশের জন্য খেলছি...।"

ছবির কপিরাইট Getty Images
Image caption তাসকিন আহমেদ

চ্যাম্পিয়নস ট্রফির প্রথম ম্যাচে দলে ছিলেন না তাসকিন। তবে শুক্রবার কার্ডিফে নিউ জিল্যান্ডের বিরুদ্ধে মরা-বাঁচার ম্যাচে দলে জায়গা পেয়ে দুটি উইকেট নিয়েছেন তিনি।

"একটি ম্যাচ খারাপ খেললে কেউ খারাপ ক্রিকেটার হয়ে যায়না। অনেক সময় একটু খারাপ খেললে অনেকে হতাশাজনক মন্তব্য করতে থাকেন, আবার একটু ভালো খেললে মাথায় তোলেন.. তবে এ ধরণের সংস্কৃতির পরিবর্তণ হচ্ছে।"

"আমরা দেশের জন্য খেলছি। অনেক সময় অনেক ত্যাগ স্বীকার করতে হয়। অনেক সময় মাসের পর মাস পরিবার থেকে দুরে থাকতে হয়। বাজে মন্তব্য দেখলে কষ্ট হয়।"

"দোয়া করবেন আমরা যেন আরো ভালো করতে পারি, মাঝেমধ্যে খারাপ করলেও সাথে থাকবেন, তাহলে আমরা আরো ভালো করবো।"

কার্ডিফে শনিবার একজন মাঝবয়সী ইংরেজ মহিলা তাসকিনকে ঝাপটে ধরে গালে চুমু খেয়েছিলেন। অনেক ভক্ত ফেসবুক লাইভের সময় বিষয়টি তোলেন। একজন তাসকিনকে জিজ্ঞেস করেন, সে সময় তার কি অনুভূতি হয়েছিলো। হেসে তিনি বলেন -- "তিনি একজন ফ্যান, তাকে চিনি না, কোনো অনুভূতিই হয়নি।"

তাসকিনের এই ফেসবুক লাইভ সম্পর্কে অজ্ঞতা প্রকাশ করেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের মুখপাত্র রাবিদ ইমাম। টুর্নামেন্ট চলার সময় এ ধরণের ফেসবুক লাইভের অনুমতি কি ক্রিকেটাররা পান? রাবিদ ইমাম বলেন, শুধু ফ্যানদের সাথে মতবিনিমিয় করা যায়।

সম্পর্কিত বিষয়