এখনো সৌদি আরব যেতে পারেনি ৬৫ হাজার হজযাত্রী

ছবির কপিরাইট AFP
Image caption হজের শেষ ফ্লাইট যাওয়ার কথা রয়েছে ২৮ শে আগস্ট।

বাংলাদেশে এবারের হজ যাত্রীর সংখ্যা এক লাখ সাতাশ হাজারের মতো।

যার মধ্যে এখনো পর্যন্ত অর্ধেকই সৌদি আরব যাওয়া বাকি।

হজে যাত্রী পাঠানোর এজেন্সিগুলোর সমিতি হাব বলছে, আজ পর্যন্ত ৬২ হাজার হজযাত্রী সৌদি আরব পৌঁছেছেন।

কিন্তু তারপরও প্রায় প্রতিদিনই যাত্রী সংকটে ফ্লাইট বাতিল বা পেছানো হচ্ছে।

হাব জানিয়েছে সবমিলিয়ে এপর্যন্ত ২৫ টির মতো ফ্লাইট বাতিল হয়েছে।

ভিসা সংকট দিয়ে শুরু হয়েছিলো এবারের সমস্যা। ভিসা বাকি রয়ে গেছে এখনো ২০ হাজারের মতো হজযাত্রীর।

কিন্তু হজের শেষ ফ্লাইট যাওয়ার কথা রয়েছে ২৮ শে আগস্ট।

হাবের মহাসচিব শাহাদাত হোসাইন তসলিম বলছেন, "ভিসা নিয়ে আর সমস্যা হবে না কিন্তু এখন সমস্যা হয়ে গেছে যারা মদিনা হয়ে ঢুকবেন তাদের নিয়ে। সৌদি সরকারের নিয়ম হলো শুধু মক্কা ও মদিনা হয়ে হজের জন্য সৌদিতে প্রবেশ করা যায়। মদিনা প্রবেশের পরবর্তী তারিখ দেয়া হয়েছে ১৮ আগস্ট। এতে করে অনেকেই তার আগে বিমান যাত্রা করতে পারছেন না"

শুরু থেকেই মোয়াল্লেম ফি নিয়ে ঝামেলা, ভিসায় দেরি, দ্বিতীয়বারে হজ যাত্রীদের জন্য বাড়তি ফি, সৌদিতে বাসা ভাড়ায় দেরি এসব নানা অব্যবস্থাপনায় জর্জরিত এবারের হজ যাত্রা।

অন্যদিকে এসব অনিয়ম তদন্ত করতে একটি কমিশন গঠনের ব্যাপারে আদালতে আজ একটি রিট করা হয়েছে।

রিট আবেদনকারী আইনজীবী মনজিল মোর্শেদ বলেছেন, "হজ ব্যবস্থাপনায় দুর্বলতা, অব্যবস্থাপনা ও বিশৃঙ্খলার জন্য যারা দায়ী তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের আবেদন করেছি আমরা। এছাড়া বিষয়টি তদন্তে একটি কমিশন গঠনে আদালতের নির্দেশনা চাওয়া হয়েছে"

তিনি আরো বলছেন, "এব্যাপারে প্রশাসনের নিষ্ক্রিয়তা কেন বেআইনি ঘোষণা করা হবে না সেব্যাপারেও আদালতের কাছে রুল চেয়ে এই রিট আবেদনটি করা হয়েছে"