BBC Bangla

মূলপাতা > খবর

'আরাকান হানাহানিতে সরকারি হাত রয়েছে'

Facebook Twitter Google+
18 নভেম্বর 2012 18:00
'আরাকান হানাহানিতে সরকারি হাত রয়েছে'

বার্মার পশ্চিমাঞ্চলীয় রাখাইন প্রদেশে আরাকানী রোহিঙ্গা জাতিগোষ্ঠীর মুসলমানদের বিরুদ্ধে সহিংসতায় সে দেশের নিরাপত্তা বাহিনী এবং স্থানীয় প্রশাসনের ইন্ধন রয়েছে বলে অভিযোগ করছে আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা হিউম্যান রাইট্‌স ওয়াচ।

এক বিবৃতিতে সংস্থাটি বলছে, তারা পশ্চিম বার্মার ওপর সর্বশেষ যে স্যাটেলাইট চিত্র সংগ্রহ করেছে তাতে পক্ট, ম্রক-উ এবং মেবন শহরের রোহিঙ্গা-প্রধান এলাকায় বাড়িঘর ও সম্পদের ব্যাপক ধ্বংসযজ্ঞের প্রমাণ পাওয়া গিয়েছে।

গত অক্টোবরের শেষ নাগাদ এই শহর তিনটিতে ব্যাপক সহিংসতা হয় এবং বহু মানুষ গৃহহীন হয়।

হিউম্যান রাইট্‌স ওয়াচ বলছে গত ৩রা ও ৪ঠা নভেম্বর তোলা স্যাটেলাইট ছবিতে দেখা যাচ্ছে আক্রান্ত শহরগুলোতে ৩৪৮ একর রোহিঙ্গা অধ্যুষিত এলাকায় মোট ৪৮৫৫টি বাড়িঘর ধ্বংস করা হয়েছে।

ওবামার বার্মা সফর

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ওবামা একদিনের এক সফরে সোমবার রেঙ্গুন সফর করছেন।

এ সময় তিনি বার্মার প্রেসিডেন্ট থিন শেইন এবং বিরোধীদলীয় নেতাদের সাথে বৈঠক করবেন বলে কথা রয়েছে।

হিউম্যান রাইট্‌স ওয়াচ পশ্চিম বার্মার হানাহানি বন্ধে প্রেসিডেন্ট ওবামার প্রতি ডাক দিয়েছে।

হিউম্যান রাইট্‌স ওয়াচের এশিয়া বিভাগের প্রধান ব্র্যাড অ্যাডামস বলছেন, মি. ওবামার উচিত হবে বার্মাকে পরিস্কারভাবে জানানো যে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সাথে নতুন করে শুরু হওয়া সামরিক আলোচনা স্থগিত এবং নতুন করে নিষেধাজ্ঞা এড়ানোর জন্য বর্মী সরকারকে রোহিঙ্গাদের ওপর হামলা বন্ধ করতে হবে।

তিনি বলেন, ''আরাকান প্রদেশে জাতিগত সহিংসতা বন্ধ করা এবং জড়িত ব্যাক্তিদের শাস্তির ব্যবস্থা করতে ব্যর্থতায় বার্মাকে আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল এবং বহুজাতিক এক দেশ হিসেবে গড়ে তোলার ব্যাপারে সরকারের দাবি প্রশ্নবিদ্ধ হয়েছে।''

বুকমার্ক করুন

Email Facebook Google+ Twitter
রিফ্রেশ