সিরিয়ার আলেপ্পোতে ত্রাণ বহরের ওপর বিমান হামলা

ছবির কপিরাইট সিরিয় রেড ক্রিসেন্ট
Image caption ত্রাণ নিয়ে রওয়ানা দেয়ার পূর্বে ত্রাণ বোঝাই ৩১ টি ট্রাক

সিরিয়ার আলেপ্পোর বিদ্রোহী নিয়ন্ত্রিত একটি এলাকার কাছে একটি ত্রাণবাহী গাড়িবহর বিমান হামলার শিকার হয়েছে। সিরিয় সেনাবাহিনী প্রায় সপ্তাহব্যাপী একটি অস্ত্রবিরতির অবসান ঘোষণা করার কয়েক ঘণ্টা পর এই হামলার ঘটনা ঘটলো।

সিরিয় রেড ক্রিসেন্টের সদস্যরা জাতিসংঘের ঐ ত্রাণবাহী বহরটি নিয়ে যাচ্ছিল বলে জানা গেছে।

আলেপ্পোর প্রত্যন্ত উর্ম আল খুবরা এলাকায় যাবার পথে জাতিসংঘের ত্রাণবাহী বহরটি হামলার শিকার হয়। বিমান হামলায় বেশ কয়েকজন হতাহত হয়েছে বলে খবর পাওয়া যাচ্ছে।

অসমর্থিত একটি খবরে বলা হচ্ছে যে, হামলায় ১২ জন নিহত হয়েছে।

জাতিসংঘের একজন মুখপাত্র বলেছেন, ত্রাণবাহী ৩১ টি ট্রাকের মধ্যে ১৮ টি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বলে তারা জানতে পেরেছেন, তবে বিমান হামলার বিষয়ে তারা নিশ্চিত নন। সিরিয়া বিষয়ক জাতিসংঘের বিশেষ দূত, স্টেফান ডি মিসটুরা এক বিবৃতিতে বলেছেন যে, এই ঘটনায় তারা ক্ষুব্ধ।

সিরিয়ায় অস্ত্রবিরতির অবসান ঘোষণা করার কিছু পরেই আলেপ্পো শহরে যুদ্ধবিমান থেকে বোমা হামলা শুরু হয়। বিদ্রোহীরা অস্ত্রবিরতির শর্ত ভেঙ্গেছে বলে অভিযোগ করছে সিরিয় সেনাবাহিনী।

ছবির কপিরাইট গেটি ইমেজেস
Image caption বছরের পর বছর লড়াইয়ে আলেপ্পোর বিশাল অংশ ধ্বংস হয়ে গেছে

ত্রাণ বহরে কারা বিমান হামলা চালিয়েছে তা এখনো নিশ্চিত নয়।

সিরিয়ান অবজারভেটরি ফর হিউম্যান রাইটস বলছে, সরকারী অথবা রুশ যুদ্ধবিমান থেকে এই হামলা চালানো হয়েছে। তবে সিরিয় সরকার এবিষয়ে কোন মন্তব্য করেনি।

সিরিয় রেড ক্রিসেন্ট বলছে, আক্রান্ত ত্রাণবহরটি আলেপ্পো থেকে নিয়মিত কার্যক্রমের অংশ হিসেবে বিদ্রোহী নিয়ন্ত্রিত প্রত্যন্ত এলাকার দিকে যাচ্ছিল। অনলাইনে প্রকাশিত কিছু ছবিতে অনেকগুলো দীর্ঘাকৃতির ট্রাক এবং লরিতে আগুন জ্বলতে দেখা গেছে।