বাংলাদেশে সব্যসাচী লেখক সৈয়দ শামসুল হক মারা গেছেন

ছবির কপিরাইট BBC BANGLA
Image caption সৈয়দ শামসুল হক

বাংলাদেশে সাহিত্যিক সৈয়দ শামসুল হক মারা গেছেন।

মঙ্গলবার বিকেলে ঢাকার একটি হাসপাতালে তিনি শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন। তার বয়স হয়েছিলো ৮১ বছর।

ফুসফুসের ক্যান্সারে আক্রান্ত সৈয়দ হক লন্ডনে চিকিৎসা শেষে বাংলাদেশে ফিরে যাওয়ার পর ইউনাইটেড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন।

হাসপাতালের একজন কর্মকর্তা সাজ্জাদুর রহমান তার মৃত্যুর খবরটি নিশ্চিত করেছেন।

সাহিত্যের সব শাখায় বিচরণের কারণে তিনি পরিচিত হয়ে উঠেন সব্যসাচী লেখক হিসেবে।

প্রচুর উপন্যাস, কবিতা, নাটক ও গান লিখে তিনি সুনাম কুড়িয়েছেন।

সৈয়দ শামসুল হক সত্তরের দশকে বিবিসি বাংলায় প্রযোজক হিসেবেও কাজ করেছেন।

তার উল্লেখযোগ্য উপন্যাসের মধ্যে রয়েছে অন্তর্গত, বৃষ্টি ও বিদ্রোহীগণ, তুমি সেই তরবারি, খেলারাম খেলে যা।

কাব্যগ্রন্থের মধ্যে রয়েছে পরাণের গহীন ভিতর, বৈশাখে রচিত পংক্তিমালা।

নাটকের মধ্যে রয়েছে নুরলদীনের সারাজীবন, পায়ের আওয়াজ পাওয়া যায়।

বহু সিনেমার কাহিনী এবং গানও লিখেছেন তিনি। উপস্থাপনা করেছেন টেলিভিশনের অনুষ্ঠানও।

আগামীকাল বুধবার সৈয়দ হকের মৃতদেহ রাখা হবে ঢাকায় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে, সর্বস্তরের জনগণের শ্রদ্ধা জানানোর জন্যে।

পরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় মসজিদে তারা জানাজা অনুষ্ঠিত হবে।

এরপর তার মরদেহ নিয়ে যাওয়া হবে কুড়িগ্রামের একটি স্কুলে।

ওই স্কুলেরই একটি গোরস্থানে তাকে দাফন করা হবে।

সৈয়দ হকের পরিবার সূত্রে জানা গেছে, তিনি নিজেই সেখানে একটি কবর নির্ধারণ করে গেছেন।

সম্পর্কিত বিষয়