ট্রাম্পের ভাগ্যে ৮০ কোটি ডলার কমেছে এক বছরে

ডোনাল্ড ট্রাম্প ছবির কপিরাইট Getty Images
Image caption মি: ট্রাম্প ভোটারদের বুঝিয়ে দিতে চান কিভাবে তিনি নিজের টাকায় নির্বাচনী প্রচারণা চালাচ্ছেন।

"আমি অনেক ধনী এবং এটাই আমাদের সৌন্দর্যের একটা অংশ"-একসময় এমন মন্তব্য করেছিলেন যুক্তরাষ্ট্রের আসন্ন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রিপাবলিকান দলীয় প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্প।

কিন্তু ফোর্বস ম্যাগাজিনের হিসেব অনুযায়ী গত এক বছরে ট্রাম্পের সম্পদের পরিমাণ বেশ কমেছে।

আরো দেখুন:

বাংলাদেশে বিদেশি পর্যটক আসতে বাধা কোথায়?

পাকিস্তান কি ভারতে পাল্টা হামলা চালাবে ?

অন্যতম ব্যবসায়িক ম্যাগাজিন ফোর্বস ডোনাল্ড ট্রাম্পের সম্পদের পুনর্মূল্যায়ন করেছে এবং তাতে দেখা যাচ্ছে ২০১৫ সাল থেকে এ পর্যন্ত তাঁর সম্পদের মান প্রায় ৮০ কোটি মার্কিন ডলার কমে গেছে।

ম্যাগাজিনটির হিসাব অনুযায়ী টাকার অংকে ট্রাম্পের বর্তমান সম্পদের পরিমাণ ৩৭০ কোটি মার্কিন ডলার।

ছবির কপিরাইট Getty Images
Image caption ফোর্বসের হিসেব অনুযায়ী টাকার অংকে ট্রাম্পের বর্তমান সম্পদের পরিমাণ ৩৭০ কোটি মার্কিন ডলার।

প্রতিবেদনে বলা হচ্ছে, নিউইয়র্কের আবাসন ব্যবসার ওঠানামার কারণে এর প্রভাব এসে পড়েছে ট্রাম্পের সম্পদের ওপর এবং মূলত এ কারণেই তাঁর সম্পদের মান কমেছে।

সোমবার প্রথম নির্বাচনী বিতর্কে হিলারি ক্লিনটনের মুখোমুখি হয়ে ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছিলেন, "আমার আয় ব্যাপক... অর্থ সম্পর্কে স্বচ্ছ ধারণা রয়েছে এমন কেউ এবার যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচনে লড়ছে"।

গত তিন দশকেরও বেশি সময় ধরে ফোর্বস মি: ট্রাম্পের সম্পদের হিসেব গণনা করে আসছে। মূলত আবাসন ব্যবসার মধ্যদিয়েই ট্রাম্প তাঁর সম্পদের বিশাল ভাণ্ডার তৈরি করেছেন।

ফোর্বসের হিসেব অনুযায়ী ট্রাম্পের ২৮টি ভবনের মধ্যে ১৮টির দাম কমেছে। মূল্যমানের পতনের তালিকায় ম্যানহাটনের ফিফথ এভিনিউতে থাকা ট্রাম্প টাওয়ারও রয়েছে।

ওয়াল স্ট্রিট এবং মার-এ-লাজোতে থাকা তাঁর সম্পদ ও ফ্লোরিডার পাম বিচের প্রাইভেট ক্লাবেরও মূল্য কমে গেছে বলে ফোর্বস জানিয়েছে।

কিন্তু ট্রাম্পের সাতটি সম্পদের দাম বেড়েছে। এর মধ্যে সান ফ্রান্সিসকোর দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ভবনও রয়েছে।

ছবির কপিরাইট Getty Images
Image caption ডোনাল্ড ট্রাম্প ও তাঁর সাবেক স্ত্রী ইভানা, ১৯৮৯ সালের ছবি।