গুলশান হামলার সন্দেহভাজনদের তালিকা থেকে তাহমিদ মুক্ত

ছবির কপিরাইট COLLECTED
Image caption হামলাকারীর সাথে অস্ত্র হাতে তাহমিদের এ ছবি অনেক প্রশ্নের জন্ম দিয়েছিল।

বাংলাদেশের গুলশানে জঙ্গি হামলার ঘটনায় সন্দেহভাজন হিসেবে আটক তাহমিদ হাসিব খানকে মঙ্গলবার অভিযোগ থেকে অব্যাহতি দিয়েছে ঢাকার একটি আদালত।

পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের প্রতিবেদন অনুযায়ী তাহমিদ হাসিব খানকে আদালত অব্যাহতি দিয়েছে।

ঢাকার গুলশান এলাকায় অভিজাত হলি আর্টিজান রেস্তোরাঁয় গত পয়লা জুলাই জঙ্গি হামলায় ১৭ জন বিদেশী ও দুজন পুলিশ সদস্যসহ মোট ২২ জন নিহত হয়।

হামলার পর যাদের জীবিত উদ্ধার করা হয় বা ছেড়ে দেয়া হয়, তাদের মধ্যে তাহমিদ হাসিব খান অন্যতম। ঘটনার পর সংশ্লিষ্টতার সন্দেহে ঢাকার নর্থ সা‌উথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক হাসনাত করিমকেও আটক করা হয়।তাহমিদ এরই মধ্যে জামিন পেলেও হাসনাত করিমকে মূল মামলায় গ্রেফতার দেখানো হয়েছে।

গুলশান হামলার সাথে সম্পৃক্ততার সন্দেহে ঘটনার পরপরই এই দু'জনকে জিজ্ঞাসাবাদের কথা জানানো হলেও এক পর্যায়ে বলা হয় যে তারা আর পুলিশের হেফাজতে নেই। তবে হাসনাত করিমের সাথে তাহমিদ হাসিব খানকে ৫৪ ধারায় গ্রেফতারের পর তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়।

কিন্তু শেষ পর্যন্ত কয়েকদিন আগে পুলিশের তরফ থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে জানানো হয়েছে যে গুলশান হামলার সাথে তাহমিদ হাসিব খানের কোন সম্পৃক্ততা পাওয়া যায়নি।

গত রোববার তাহমিদকে আদালত জামিন দিলে সেদিন রাতেই তিনি মুক্তি পান।

তাহমিদের মুক্তির জন্য তার পরিবার এবং বন্ধুদের তরফ থেকে আন্তর্জাতিকভাবে ব্যাপক প্রচারণাও করা হয়েছিল।

হলি আর্টিজান বেকারীর ছাদে একজন হামলাকারীর সাথে অস্ত্র হাতে তাহমিদের দাড়িয়ে থাকার ছবি বহু প্রশ্নের জন্ম দিয়েছিল। সে ছবিতে তাহমিদ হাসিব খানের সাথে হাসনাত করিমও ছিলেন।

কিন্তু তাহমিদ এবং হাসনাতের পরিবার বরাবরই দাবী করে আসছে তারা ছিলেন পরিস্থিতির শিকার ।