আলেপ্পোর জন্যে ফিনল্যান্ডের গির্জায় ঘণ্টা বাজছে

ছবির কপিরাইট EVL.fi/Google Maps
Image caption একটি গির্জা থেকে শুরু হয়ে পরে সেটি সারা ফিনল্যান্ডে ছড়িয়ে পড়েছে

সিরিয়ার আলেপ্পো শহরে যুদ্ধে নিহতদের স্মরণে ফিনল্যান্ডের গির্জাগুলোতে দিনে একবার করে ঘণ্টা বাজানো হচ্ছে।

এভাঞ্জেলিকেল লুথেরান চার্চ অফ ফিনল্যান্ড বলছে, তাদের দুশোরও বেশি গির্জা এই উদ্যোগে অংশ নিচ্ছে।

গত বুধবার থেকে অভিনব এই প্রতিবাদ কর্মসূচি শুরু হয়।

এসব গির্জায় প্রতিদিন ঘণ্টা বাজানো হয় বিকাল পাঁচটায়। আর সিরিয়ার যুদ্ধে যারা মারা গেছে তাদের স্মরণে এই ঘণ্টা বাজবে টানা ১২ দিন ধরে।

প্রথমে এই ধারণাটি আসে রাজধানী হেলসিঙ্কিতে কাল্লিও গির্জায়। তারপর সেটা সারা দেশে ছড়িয়ে পড়ে। লন্ডনে ফিনিশ গির্জাতেও এই ঘণ্টা বাজানো হচ্ছে।

সুইডেনের উপসালা শহরেরও গির্জাও ঘোষণা করেছে যে তারাও এই ঘণ্টা বাাজবে।

"অন্তেষ্টিক্রিয়ার অনুষ্ঠান শেষে মরদেহ যখন গির্জা থেকে নিয়ে যাওয়া হয় তখন ঘণ্টা বাজানো হয়। আলেপ্পোতে যুদ্ধাপরাধ চলছে আর অগণিত মানুষের মৃত্যু হচ্ছে," বলেন টিমো লাইয়াসালো, কালিও গির্জার একজন যাজক।

সিরিয়ার যুদ্ধে আলেপ্পো হয়ে উঠেছে সরকারি বাহিনী ও বিদ্রোহীদের কাছে প্রধান লক্ষ্য। গত সেপ্টেম্বর মাসে যুদ্ধবিরতির সমঝোতার পরেও সেখানে দফায় দফায় বোমা হামলার ঘটনা ঘটছে।

"যখন এইসব দৃশ্য দেখেন যেখানে পিতামাতারা তাদের সন্তানের জন্যে কবর খুঁড়ছেন আর শিশুরা চাপা পড়ে আছে ধ্বংসস্তুপের নিচে - এটাই যদি ঘণ্টা বাজানোর জন্যে যথেষ্ট কারণ না হয় তাহলে আর কি কারণ থাকতে পারে?" প্রশ্ন করেন তিনি।

ঘণ্টা বাজানোর এই কর্মসূচি শেষ হবে ২৪শে অক্টোবর।