রহস্যে ঘেরা সিঙ্গাপুরের একমাত্র বুনো গরুটি মারা গেছে

Image caption গরুটি কনি আইল্যান্ডে কিভাবে এলো তা কেউ জানে না।

কনি আইল্যান্ড কাউ বলে তার পরিচয় ছিলো। ছোট দ্বীপ রাষ্ট্র সিঙ্গাপুর জুড়ে এটি ছিলো একমাত্র বুনো গরু।

অর্থাৎ কারো পোষা নয়। জীবদ্দশায় গরুটি খুবই জনপ্রিয় হয়ে উঠেছিলো। কিন্তু বড্ড একাকী জীবন ছিলো তার।

গত সপ্তায় তার একাকীত্ব ঘুচে গেছে। মারা গেছে কনি আইল্যান্ড কাউ।

কিন্তু সিঙ্গাপুরের কনি আইল্যান্ডে সেটি কিভাবে এসেছিলো তা কেউ জানে না।

তাকে নিয়ে ছিলো নানা রহস্য।

বছর খানেক আগে নতুন করে কনি আইল্যান্ডের পরিচয় হলো পর্যটকদের জন্য।

সেখানে চালু হলো একটি ন্যাশনাল পার্ক। পর্যটকরা সেখানে হাইকিং বা সাইক্লিং করার সুযোগ পেলেন।

Image caption পর্যটকদের জন্য কনি আইল্যান্ড আছে এমন ওয়ার্নিং সাইন।

কিন্তু কদিন পর সবাই টেরে পেলেন এই দ্বীপে আগে থেকেই একজন বাসিন্দা আছে।

হঠাৎ তাকে দেখা যেতো আবার হঠাৎ নেই। পর্যটকদের দিকে কখনো বোকার মতো তাকিয়ে থাকতো।

এই পার্কে এরকম একটি গরু থাকার কথা নয়। পর্যটকরা তার উপস্থিতি পছন্দ করতে শুরু করলো।

তার নাম হয়ে উঠলো কনি আইল্যান্ড কাউ। নতুন পর্যটকদের জন্য বসানো হলো সাইনবোর্ড। তাতে লেখা হলো, 'গরুটি দেখলে ভয় পাবেন না।

তাকে বিরক্ত করবেন না। তার সাথে ছবি তুলবেন না' ইত্যাদি নানা সব ওয়ার্নিং।

কিন্তু পর্যটকরা এসব সাবধান বানী পাত্তাই দেয়নি।

গরুটিকে খুঁজে বের করা দ্বীপে বেড়াতে যাওয়া পর্যটকদের একটা এডভেঞ্চার হয়ে উঠেছিলো।

এখন তার মৃত্যুতে সোশাল মিডিয়াতে শোক প্রকাশ করছেন সিঙ্গাপুরের মানুষজন।

কর্তৃপক্ষ বলছে কনি আইল্যান্ড কাউ ফুসফুসের অসুখে মারা গেছে।