অভিযানের মুখে ইরাকের মসুল ছেড়ে পালাচ্ছে হাজার হাজার মানুষ

ছবির কপিরাইট AP
Image caption ইরাকের মসুল শহর ছেড়ে পালাচ্ছে হাজার হাজার মানুষ

ইসলামিক স্টেটের হাত থেকে ইরাকের মসুল শহর মুক্ত করার অভিযান শুরুর তিনদিনের মাথায় হাজার হাজার মানুষ নানাভাবে শহর থেকে পালাচ্ছে।

ত্রাণ সংস্থা সেভ দি চিলড্রেন বলেছে অভিযানের আঁচ পেয়ে বেশ কয়েকদিন আগে থেকেই মানুষজন মসুল থেকে পালাচ্ছিলো।

গত দশদিনে অন্তত হাজার পাঁচেক লোক আইএস-এর নজর এড়িয়ে সীমান্ত পেরিয়ে সিরিয়ায় ঢুকেছে।

ত্রাণ সংস্থাগুলো বলছে মসুলে অভিযানের ফলে ১০ লাখ মানুষ নতুন করে বাস্তুচ্যুত হতে পারে ।

শহর থেকে বেরুনোর পথগুলোতে ইসলামিক স্টেট বোমা পেতে রাখতে পারে - এই আশঙ্কায় ইরাকের সেনাবাহিনী মসুলের বাসিন্দাদের বাড়িতেই নিরাপদে থাকতে অনুরোধ করছে। কিন্তু তারপরও অনেক মানুষ পালানোর চেষ্টা করছে।

জাতিসংঘ শরণার্থী সংস্থা বলছে মসুল থেকে ন'শর মতো মানুষ ৫০ মাইল দুরে সীমান্ত পেরিয়ে সিরিয়ায় ঢুকেছে। ত্রান সংস্থা ইন্টারন্যাশনাল রেসকিউ কমিটির একজন কর্মকর্তা আলেক্সান্ডার মিলুতিনোভিচ বলছেন আরো অন্তত দু হাজার মানুষ পথে রয়েছে। তিনি বলেন, আতঙ্কিত মানুষজন পালানোর জন্য মানব-পাচারকারিদের পয়সা দিচ্ছে।

"কিছু গ্রামবাসী পালাতে পেরেছে। তাদের কেউ কেউ নিরাপদে পালাতে সাহায্য করার জন্য পাচারকারিদের অনেক পয়সা দিয়েছে। জায়গা ভেদে দুশ ডলার থেকে ছয় হাজার ডলার পর্যন্ত দিতে হচ্ছে। একটি ব্যাগে কিছু কাপড়চোপড় এবং পরিচয়পত্র কাঁধে ফেলে মানুষ মসুল থেকে পালানোর চেষ্টা করছে।"

মসুলে এখনও ১৫ লাখের মত মানুষের বসবাস। আইএস এদের মানব ঢাল হিসাবে ব্যবহার করবে বলে আশঙ্কা রয়েছে। তার ইঙ্গিত এখনই পাওয়া যাচ্ছে।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স বলছে শহরের ভেতর থেকে অনেক বাসিন্দা মোবাইল ফোনে তাদের জানিয়েছে, আই এস মানুষজনকে পালাতে বাধা দিচ্ছে।

তবে বিবিসির সংবাদদাতারা জানাচ্ছেন, হাজার পাঁচেক আইএস যোদ্ধার পক্ষে সবাইকে ঠেকানো সম্ভব হবেনা। তবে তারা যে সবরকম চেষ্টা করবে, এমনকি রাসায়নিক অস্ত্র ব্যবহার করতে পারে - এমন আশঙ্কাও রয়েছে।