ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় হিন্দুদের বাড়িতে আবারো হামলা, অগ্নিসংযোগ

শুক্রবার ভোররাতে এ হিন্দু বাড়িতে অগ্নিসংযোগ করা হয়। ছবির কপিরাইট Azizul Shonchay
Image caption শুক্রবার ভোররাতে এ হিন্দু বাড়িতে অগ্নিসংযোগ করা হয়।

বাংলাদেশের ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগর উপজেলায় হিন্দুদের বাড়ি-ঘরে আবারো হামলার ঘটনা ঘটেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

শুক্রবার ভোররাত সাড়ে তিনটা থেকে সাড়ে তিনটার মধ্যে সেখানে হিন্দুদের কিছু বাড়ি-ঘরে অগ্নিসংযোগ করা হয় বলে স্থানীয় বাসিন্দা এবং পুলিশ জানিয়েছে।

গত রবিবার নাসিরনগরে একশ'র বেশি হিন্দুবাড়ি ও মন্দিরে ভাংচুর এবং লুটপাটের পাঁচদিনের মাথায় আবারো এ অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটলো। তবে এ ঘটনায় হতাহতের কোন খবর পাওয়া যায়নি।

শুক্রবার সকালে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা ঘুরে দেখেছেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সাংবাদিক আজিজুল সঞ্চয়। তিনি বিবিসি বাংলাকে জানিয়েছেন নাসিরনগর উপজেলা সদরের কাছে পশ্চিমপাড়া এলাকায় পাঁচটি হিন্দু বাড়িতে অগ্নিসংযোগ করা হয়েছে।

নিরাপত্তা বাহিনীর উপস্থিতির মাঝেই নতুন করে হিন্দুদের বাড়িতে অগ্নিসংযোগের ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন নাসিরনগর উপজেলার হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি আধেশ চন্দ্র দেব।

তিনি বিবিসি বাংলাকে জানান, এ অগ্নিসংযোগের ঘটনায় হিন্দুদের মাঝে উদ্বেগ এবং আতঙ্ক তৈরি হয়েছে।

ছবির কপিরাইট Azizul Shonchay
Image caption নাসিরনগর উপজেলায় পুড়ে যাওয়া ঘরের ধংসস্তুপ
ছবির কপিরাইট Azizul Shonchay
Image caption পুড়িয়ে দেয়া একটি পূজামন্ডপ
ছবির কপিরাইট Azizul Shonchay
Image caption অগ্নিসংযোগের পর সকালে নিরাপত্তা বাহিনীর তৎপরতা।

তবে এ ঘটনার সাথে কারা জড়িত, সেটি পুলিশ বা এলাকাবাসী তাৎক্ষনিকভাবে কিছু বলতে পারছেনা ।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান বিবিসি বাংলাকে জানিয়েছেন, যারা অস্থিতিশীলতা তৈরি করতে চায় তারাই নতুন করে এ ঘটনা ঘটিয়েছে।

মি: রহমান বলেন, মূল বাসস্থানের ঘরে অগ্নিসংযোগ করা হয়নি। বরং গোয়ালঘর ও রান্নাঘরে অগ্নিসংযোগ করা হয়েছে।

গত রবিবার নাসিরনগরে হিন্দুদের উপর সাম্প্রদায়িক হামলার পর ঘটনাস্থলগুলোতে প্রায় ১০০'র মতো পুলিশ এবং আর্মড পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

পুলিশ সুপার জানিয়েছেন, যে জায়গাগুলোতে নিরাপত্তাবাহিনীর উপস্থিতি নেই সেখানেই অগ্নিসংযোগ করা হয়েছে।