মিশেল ওবামাকে নিয়ে বর্ণবাদী পোস্ট, যুক্তরাষ্ট্রে হৈচৈ

ছবির কপিরাইট AP
Image caption মিশেল ওবামা

মার্কিন ফার্স্ট লেডি মিশেল ওবামা সম্পর্কে একটি বর্ণবাদী ফেসবুক পোস্ট লোকের চোখে পড়ার পর তা নিয়ে ওয়েস্ট ভার্জিনিয়া অঙ্গরাজ্যের এক শহরের মেয়রকে নিয়ে তোলপাড় শুরু হয়েছে।

ক্লে কাউন্টির একটি অলাভজনক সংগঠন চালান পামেলা র‍্যামজে টেলর। তিনি ফেসবুকেএক পোস্টে মিশেল ওবামাকে 'এপ' (ape) বা বানরজাতীয় প্রাণীর সাথে তুলনা করেন।

তিনি ভাবী প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের স্ত্রী মেলানিয়া ট্রাম্পের প্রতি ইঙ্গিত করে লেখেন, "হোয়াইট হাউসে এখন একজন সুন্দরী, অভিজাত, মার্জিত ফার্স্ট লেডিকে দেখতে পাবো, মনটা ভালো হয়ে যাবে। একটা হিল পরা এপ-কে দেখতে দেখতে আমি ক্লান্ত হয়ে গেছি।"

ছবির কপিরাইট WSJA
Image caption পামেলা টেলরের সেই পোস্ট

আর এরই জবাবে ক্লে শহরটির মেয়র বেভারলি হোয়েলিং লেখেন: "প্যাম, তুমি আমার দিনটিকে ভালো করে দিয়েছো।"

এই শহরটিতে মাত্র ৪৯১ জন লোকের বাস। এখানে কোন কৃষ্ণাঙ্গ আফ্রিকান-আমেরিকান থাকেন না।

কিন্তু এই ছোট শহরের ফেসবুক পোস্টই ছড়িয়ে পড়ে সারা আমেরিকায়, এবং এর পর ৮৫ হাজার লোক স্বাক্ষরসহ আবেদন করেন - এই দুই মহিলাকেই বরখাস্ত করা হোক।

এর পর সোমবারই ওয়াশিংটন পোস্ট এবং নিউইয়র্ক ডেইলি নিউজ জানায়, মিজ টেলরকে তার পদ থেকে সরিয়ে দেয়া হয়েছে।

ছবির কপিরাইট হোয়াউট হাউস
Image caption মিশেল ওবামা এবং মেলানিয়া ট্রাম্প

মিজ টেলর এবং মিজ হোয়েলিং দুজনই অবশ্য ভিন্ন ভিন্ন বক্তব্যে বলেছেন, তারা বর্ণবাদী চিন্তা থেকে এটা লেখেন নি।

কিন্তু আমেরিকার 'ন্যাশনাল এ্যাসোসিয়েশন ফর এ্যাডভান্সমেন্ট অব কালার্ড পিপল' এর একজন স্থানীয় কর্মকর্তা ওয়েন্স ব্রাউন বলেছেন, দুর্ভাগ্যজনকভাবে লোকের ভেতরে এখনও বর্ণবাদী মানসিকতা রয়ে গেছে।

ওয়েস্ট ভার্জিনিয়ার ডেমোক্রেটিক পার্টির নেত্রী বেলিন্ডা বিয়াফোরে এ ঘটনায় মিশেল ওবামার কাছে দু:খ প্রকাশ করেছেন।