'ইসলামী মূল্যবোধ সম্পন্ন' কার্টুন হচ্ছে অস্ট্রেলিয়ায়

ছবির কপিরাইট ONE4KIDS
Image caption বারাকা হিলস

বিশ্বব্যাপি জনপ্রিয় কার্টুন সিরিজ পেপা পিগের মতোই কিন্তু ইসলামী মূল্যবোধ সমর্থন করে - এমন একটি কার্টুন সিরিজ তৈরি করতে যাচ্ছে অস্ট্রেলিয়ার একটি প্রতিষ্ঠান, কিন্তু এর অর্থ সংগ্রহের জন্য তাদের চাঁদা তোলার পথ নিতে হচ্ছে।

ওয়ান ফর কিডস নামের একটি প্রতিষ্ঠান - যারা ইসলাম-সম্পর্কিত বিষয় নিয়ে শিশুদের অনুষ্ঠান বানায় - তারা 'বারাকা হিলস' নামে একটি কার্টুন নির্মাণ শুরুর জন্য ১৫ হাজার মার্কিন ডলার সংগ্রহ করতে চাইছে।

বারাকা হিলসের প্রযোজক বলছেন, 'পেপা পিগ' নামের বিপুল জনপ্রিয়তা পাওয়া কার্টুনের এটি একটি বিকল্প হতে পারে।

'পেপা পিগ ' একটি শূকর পরিবারের প্রতিদিনের জীবনভিত্তিক ব্রিটিশ কার্টুন - যা পৃথিবীর ১৮০টি দেশে দেখানো হয়।

অস্ট্রেলিয়ার একজন ইসলাম ধর্মীয় নেতা এবং সেখানকার জাতীয় ইমাম কাউন্সিলের প্রধান শেখ সাদি আল-সুলেইমান বলেছেন, বিনোদন জগতের মূলধারায় যেসব কার্টুন প্রচার হয় -তার চেয়ে ভালো বিকল্প মুসলিম দর্শক-শ্রোতার জন্য থাকা উচিত।

তিনি বলছেন, ইসলামিক মূল্যবোধ সমর্থন করে এমন টিভি কার্টুনের জন্য অভিভাববকদের চাঁদা দেয়া উচিত।

ছবির কপিরাইট Artur Debat#68614
Image caption পেপা পিগ বিশ্বব্যাপি জনপ্রিয়

বারাকা হিলস-এর প্রযোজকরা বলছেন,এই অনুষ্ঠানটির মূল উদ্দেশ্য হচ্ছে, ধর্মীয় বিধি পালনকারী একজন মুসলিমের জীবন কেমন এবং তার কমিউনিটির মধ্যে একজন সুনাগরিক হওয়াটাই বা কি - এটা তারা শিশুদের দেখাতে চান।

শেখ সাদি বলেন, মূলধারার কার্টুন দেখতে তিনি শিশুদের নিরুৎসাহিত করছেন না - তবে অভিভাবকদের প্রতি তিনি আরেকটি বিকল্পকে তুলে ধরার আহ্বান জানাচ্ছেন।

ওয়ান ফর কিডস কোম্পানিটি সিডনি ভিত্তিক। তারা নামাজ , নবীদের জীবন, রমজান, এবং আরবি শিক্ষা বিষয়ক কার্টুন বানিয়ে থাকে।

ওয়ান ফর কিডসের প্রযোজক সুবহি আলশেখ বিবিসিকে বলেন, তিনি মুসলিম বা অমুসলিম, শূয়োর পছন্দ করে বা করে না এমন সবার মতই 'পেপা পিগ' উপভোগ করেন কিন্তু এতে কিছু বার্তা রয়েছে যাতে শিশুদের ব্যবহার খারাপ হয়ে যেতে পারে।

"আমরা ভাবলাম এর মতই বা এর বিকল্প কিছু আমরা করি না কেন?" বলেন তিনি।

সরকারি হিসেব মতে অস্ট্রেলিয়ায় ২.২ শতাংশ লোক মুসলিম এবং ৬১.১ শতাংশ লোক খ্রীষ্টান বলে নিজেদের পরিচয় দেয়।

সম্পর্কিত বিষয়