পায়ুপথে বাতাস দেয়ায় প্রাণ গেলো আরেক কিশোরের

Image caption নারায়ণগঞ্জে এর আগেও পায়ুপথে বাতাস দিয়ে এক শিশুকে হত্যার ঘটনা ঘটেছিলো

বাংলাদেশের নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁওয়ে পায়ুপথে বাতাস ঢুকানোর কারণে এক শিশুর মৃত্যুর কারণে তার সহকর্মী এক তরুণকে আটক করেছে পুলিশ।

সোনারগাঁও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মনজুর কাদের জানান ইয়ামিন নামে ১৩ বছরের শিশুটির মৃত্যুর পর তার সহকর্মী ২০/২২ বছর বয়সী রায়হানকে আটক করেছেন তারা।

তারা দুজনই একটি স্পিনিং মিলের ওয়ার্কশপে কাজ করতো যেখানে তুলার কাজ হতো ।

মিস্টার কাদের বলছেন বুধবার রাতে কাজ শেষে শরীরে লেগে থাকা তুলা পরিষ্কার করার জন্য তারা কমপ্রেসর যন্ত্রের সহায়তা নিচ্ছিল। সেটিই একপর্যায়ে পায়ুপথে চলে যায় এবং মূহুর্তের মধ্যেই বিপুল গতিতে শরীরের বাতাস ঢুকে যায়।

তাৎক্ষনিকভাবে ইয়ামিনকে হাসপাতালে নেয়ার পথেই তার মৃত্যু হয়।

ছবির কপিরাইট ফোকাসবাংলা
Image caption শিশু রাকিবকে মলদ্বারে বাতাস দিয়ে হত্যার ঘটনায় দেশজুড়ে তোলপাড় হয়েছিলো

শিশুটির বাবা শাজাহান বাদী হয়ে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছে।

পুলিশ কর্মকর্তা মনজুর কাদের বলছেন ইচ্ছাকৃত হত্যাকাণ্ড না হলেও তারা হত্যা মামলাটি গ্রহণ করেছেন।

বাংলাদেশে এর আগে খুলনায় রাকিব নামে বারো বছর বয়সী এক শিশুকে মলদ্বারে বাতাস ঢুকিয়ে হত্যার ঘটনায় দেশজুড়ে তোলপাড় হয়েছিলো।

এর পর নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে সাগর বর্মণ নামে আরেকটি শিশুকে একই কায়দায় হত্যার অভিযোগ উঠেছিলো।