বার্লিন হামলাকারীর হাতের ছাপ পেল পুলিশ

আনিস আমরি ছবির কপিরাইট এপি
Image caption আনিস আমরির এই পুরোন ছবিটি পরিবারের পক্ষ থেকে দেয়া হয়েছে।

বার্লিনে ক্রিসমাস বাজারে হামলার জন্য যাকে খোঁজা হচ্ছে তার বিরুদ্ধে পাকা তথ্য-প্রমাণ পাওয়া গিয়েছে বলে দাবি করছে জার্মানির পুলিশ।

তারা বলছে, এই হামলায় যে মাল বোঝাই লরিটি ব্যবহার করা হয়েছিল সেটিতে আনিস আমরির হাতের ছাপ রয়েছে।

তিউনিসিয়ার এই নাগরিক এখন ইউরোপের শীর্ষ দাগি ফেরারি।

ইউরোপ জুড়ে তার বিরুদ্ধে অ্যারেস্ট ওয়ারেন্ট জারি করা হয়েছে।

তাকে ধরার জন্য জার্মান পুলিশ সকালের দিকে পশ্চিমাঞ্চলীয় শহর ডার্টমুন্ডের কয়েকটি জায়গায় হানা দেয়।

সেখানে থেকে আমরির সাথে যোগাযোগ ছিল এমন চারজনকে আটক করা হয়েছে।

এমেরিখ নামক একটি শহরে রাজনৈতিক আশ্রয়প্রার্থীদের কয়েকটি শিবিরেও অভিযান চালানো হয়েছে।

জানা গেছে, রাজধানী বার্লিনেও পুলিশ অভিযান চালিয়েছে।

ওদিকে তিউনিসিয়ার পুলিশ আমরির পৈতৃক বাড়িতে গিয়ে তার মাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তুলে নিয়ে গেছে।

ছবির কপিরাইট গেটি ইমেজেস
Image caption বার্লিনের ক্রিসমাস বাজারে মোমাবাতি জ্বালিয়ে নিহতদের স্মরণ করা হচ্ছে।

পুলিশের সূত্র উল্লেখ করে বিভিন্ন জার্মান মিডিয়া তিউনিসিয়ান এই যুবক সম্পর্কে নানা অজানা তথ্য প্রকাশ করেছে।

আবু ওয়ালা নামে একজন কট্টরপন্থী ইসলামী নেতার সাথে সংশ্লিষ্টতার প্রমাণ পাওয়ার পরপরই গত মাসে এই যুবককে জার্মান গোয়েন্দারা সন্দেহভাজন সন্ত্রাসীদের তালিকায় ঢোকায়।

তারও আগে এ বছরের প্রথম দিকে সশস্ত্র ডাকাতির পরিকল্পনা করছে এরকম প্রমাণ পাওয়ার পর থেকেই সে পুলিশের নজরে ছিল।

নিউ ইয়র্ক টাইমস খবর দিচ্ছে, আনিস আমরি যুক্তরাষ্ট্রের নো-ফ্লাই তালিকায় রয়েছে, অর্থাৎ যুক্তরাষ্ট্রে সে নিষিদ্ধ।

ইন্টারনেটে সে বিস্ফোরক তৈরি কায়দা-কানুন নিয়ে খোঁজখবর করতো।

অন্তত একবার সে অনলাইনে ইসলামিক স্টেটের সাথে যোগাযোগ করেছিলো পত্রিকাটি বলছে।

সম্পর্কিত বিষয়