ঢাকায় জঙ্গি আস্তানায় অভিযান চলছে: নিহত মেজর (অব:) জাহিদের স্ত্রীসহ দু' নারীর আত্মসমপর্ণের দাবি পুলিশের

ছবির কপিরাইট UNK
Image caption ভোররাত থেকেই তিনতলা ভবনটি ঘিরে আছে পুলিশ ( ছবিটি ফাইল ফটো হিসেবে ব্যবহার করা হলো)

পুলিশ বলছে দক্ষিণখান এলাকার আশকোনার জঙ্গি আস্তানা থেকে বেরিয়ে এসে দুই নারী আত্মসমর্পণ করেছে।

তাদের সাথে দুটি শিশু রয়েছে ।

ঢাকার পুলিশ কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া ঘটনাস্থলে সাংবাদিকদের জানিয়েছেন যে দুজন আত্মসমর্পণ করেছে তাদের একজন নিহত মেজর (অব:) জাহিদুল ইসলামের স্ত্রী জেবুন্নাহার, আরেকজন জঙ্গি মুসার স্ত্রী।

তিনি বলেন আত্মসমর্পণের সময় তারা একটি পিস্তল পুলিশের হাতে তুলে দেয়।

মেজর (অব:) জাহিদ ঢাকার রূপনগরে পুলিশী অভিযানে নিহত হয়েছিলেন।

ওদিকে আত্মসমর্পণের পর দুই নারী ও শিশুদের তাদের ঘটনাস্থল থেকে মাইক্রোবাসে করে পুলিশ হেফাজতে নেয়া হয়েছে।

ওদিকে পুলিশ কর্মকর্তারা ধারণা করছেন তিনতলা ভবনটির একটি ফ্লাটে নব্য জেএমবির বড় পর্যায়ের একজন নেতাও রয়েছেন।

ভবনটির অন্য ফ্লাটগুলোর বাসিন্দাদের সরিয়ে নেয়া হয়েছে।

'জঙ্গি আস্তানা' সন্দেহে গত মধ্য রাত থেকেই অভিযান শুরু করে পুলিশের কাউন্টার টেররিজম ইউনিট।

কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের প্রধান মনিরুল ইসলাম ঘটনাস্থলে ব্রিফিংয়ে বলেছেন ওই বাড়িতে থাকা জঙ্গিরা নব্য জেএমবির সদস্য এবং তাদের কাছে শক্তিশালী গ্রেনেড রয়েছে।

পুলিশ বলছে জঙ্গিরা আত্মসমর্পণের আহবান প্রত্যাখ্যান করছে কিন্তু তবুও চেষ্টা হচ্ছে যাতে তারা আত্মসমর্পণ করে।

ঘটনাস্থলে রয়েছে ঢাকার পুলিশ কমিশনারসহ পদস্থ পুলিশ কর্মকর্তাবৃন্দ।

আশপাশের ভবনসহ সড়কগুলোতে ভিড় করেছে শত শত উৎসুক মানুষ।

এর আগে চলতি বছরেই নারায়ণগঞ্জ ও কল্যাণপুরে এ ধরণের অভিযানে বেশ কয়েকজন জঙ্গি নিহত হয়েছিলো।