বিতর্কিত দাতব্য সংস্থা বন্ধ করার প্রতিশ্রুতি দিলেন ট্রাম্প

ছবির কপিরাইট AP
Image caption ডোনাল্ড ট্রাম্পের সাথে ফ্লোরিডার অ্যাটর্নি জেনারেল প্যাম বন্ডি (বামে)

যুক্তরাষ্ট্রের নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ঘোষণা দিয়েছে যে তার বিতর্কিত দাতব্য সংস্থা বন্ধ করে দেবেন। যদিও ঐ সংস্থাটির বিরুদ্ধে একটি তদন্ত এখনো চলছে।

নিউ ইয়র্কের অ্যাটর্নি জেনারেল 'সৎভাবে কাজ করতে ব্যর্থতা'-র সন্দেহে ট্রাম্প ফাউন্ডেশনের বিরুদ্ধে তদন্ত করছে। মি. ট্রাম্প এই অভিযোগ অস্বীকার করে আসছেন।

অ্যাটর্নি জেনারেলের কার্যালয় থেকে জানানো হয়েছে, তদন্ত চলাকালে মি. ট্রাম্প তার ফাউন্ডেশন বন্ধ করতে পারবেন না।

যুক্তরাষ্ট্র সময় শনিবারে দেয়া এক বিবৃতিতে মি. ট্রাম্প বলেন, "এই ফাউন্ডেশন বিশাল সব ভাল কাজ করেছে। অসংখ্য উপযুক্ত গোষ্ঠিকে লাখ লাখ ডলার দান করেছে, যার মধ্যে রয়েছে যুদ্ধফেরত, আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্য এবং তাদের সন্তানরা"।

"তারপরও প্রেসিডেন্ট অবস্থায় সামান্যতম স্বার্থের সংঘাতও এড়াতে আমি আমার দাতব্য কাজ অন্যান্য উপায়ে করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি"।

নিউ ইয়র্কের অ্যাটর্নি জেনারেল এরিক স্নাইডারম্যান বলেছেন, সেপ্টেম্বর থেকে তার কার্যালয় ট্রাম্প ফাউন্ডেশন "দাতব্য সংস্থার আইন মেনে কাজ করছে কিনা তা তদন্ত করা শুরু করেন"।

"আমাদের শঙ্কা আছে যে ট্রাম্প ফাউন্ডেশন হয়তো কিছু সেই দিক থেকে কিছু অন্যায় কাজে জড়িত"- সিএনএনকে তখন দেয়া এক সাক্ষাতকারে বলেছিলেন মি. স্নাইডারম্যান।

২০১৩ সালে ফ্লোরিডার অ্যাটর্নি জেনারেল প্যাম বন্ডিকে সমর্থন করছে এমন এক গোষ্ঠিকে ২৫,০০০ ডলার অনুদান দেয় ট্রাম্প ফাউন্ডেশন।

ঐসময় মিস বন্ডির কার্যালয় ট্রাম্প ইউনিভার্সিটির বিরুদ্ধে একটি প্রতারণার অভিযোগ তদন্ত করছিল।

আগামী ২০শে জানুয়ারি বারাক ওবামার উত্তরসূরি হিসেবে হোয়াইট হাউজের দায়িত্ব নেবেন মি. ট্রাম্প।