গণতন্ত্রকে রক্ষা করুন, বিদায়ী ভাষণে ওবামা

  • ১১ জানুয়ারি ২০১৭
বারাক ওবামা ছবির কপিরাইট Reuters
Image caption বারাক ওবামা

আমেরিকার প্রেসিডেন্ট হিসেবে দেয়া শেষ ভাষণে প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা মার্কিন জনগণকে গণতন্ত্র রক্ষা করার আহ্বান জানিয়েছেন।

শিকাগোতে হাজার হাজার সমর্থকের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, প্রায় সব বিবেচনাতেই আট বছর আগের তুলনায় আমেরিকা এখন ভাল ও শক্তিশালী দেশ।

৫৫ বছর বয়স্ক বারাক ওবামা ২০০৮ সালে আশা এবং পরিবর্তনের বার্তা দিয়ে আমেরিকার প্রথম কৃষ্ণাঙ্গ প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হন।

তার উত্তরসূরি ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রতিজ্ঞা করেছেন তিনি মি. ওবামার কিছু নীতিতে পরিবর্তন আনবেন।

আগামী ২০শে জানুয়ারি মি. ট্রাম্প নতুন প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নেবেন।

ভাষণে প্রেসিডেন্ট ওবামা তার শাসনামলের সাফল্যের খতিয়ান তুলে ধরেন, যার মধ্যে রয়েছে অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি, ইরানের সাথে পরমাণু চুক্তি কিউবার সাথে সম্পর্ক পুনরুদ্ধার এবং সমকামী বিয়েকে বৈধতা প্রদান।

ছবির কপিরাইট AFP
Image caption ২০০৮ সালে শিকাগোতেই বিজয় র‍্যালি করেন প্রেসিডেন্ট ওবামা। এই ছবিটি সেই সময়েই তোলা। ২০১২ সালের বিজয় র‍্যালিও তিনি শিকাগোতে করেন।

বিদায়ী ভাষণ দেয়া আমেরিকার প্রেসিডেন্টদের দীর্ঘ ঐতিহ্যের অংশ।

সাবেক প্রেসিডেন্ট জর্জ ডাব্লিউ বুশ এবং বিল ক্লিনটন তাদের শেষ ভাষণ হোয়াইট হাউজে বসেই দিয়েছিলেন।

কিন্তু প্রেসিডেন্ট ওবামা দিলেন শিকাগো গিয়ে।

এই ভাষণ দেয়ার জন্য শিকাগোকে বেছে নেয়ার কারণ হিসেবে মি. ওবামা বলেন, তিনি যেখান থেকে শুরু করেছিলেন সেখানেই শেষ করতে চেয়েছেন।

প্রেসিডেন্ট হিসেবে ৪৪৫তম বারের মত এয়ারফোর্স ওয়ান নামক বিমানটিতে করে শিকাগোতে যান মি. ওবামা।

তার সাথে ছিলেন স্ত্রী ও কন্যা।

ভাইস প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনও সস্ত্রীক উপস্থিত ছিলেন।

ভাষণের শেষ ভাগে স্ত্রী, কন্যা ও ভাইস প্রেসিডেন্ট বাইডেন-সহ তার প্রশাসনের সকল কর্মকর্তাকে ধন্যবাদ দেন মি. ওবামা।

প্রায় কুড়ি হাজারের মতো দর্শক সরাসরি সামনে বসে এই ভাষণ দেখেন।