টিপিপি থেকে যুক্তরাষ্ট্রকে প্রত্যাহার করে নিলেন ট্রাম্প

দিনটিকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নতুন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প নিজেই বলেছেন এটি তার প্রথম সত্যিকার কাজের দিন। ছবির কপিরাইট Getty Images
Image caption দিনটিকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নতুন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প নিজেই বলেছেন এটি তার প্রথম সত্যিকার কাজের দিন।

দিনটিকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নতুন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প নিজেই বলেছেন এটি তার প্রথম সত্যিকার কাজের দিন।

আর এদিনই তিনি আরেকটি নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি পূরণ করলেন টিপিপি বলে পরিচিত বাণিজ্য চুক্তি বাতিলের মধ্য দিয়ে।

সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার এশিয়া নীতির আওতায় যুক্তরাষ্ট্রসহ এশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের ১২টি দেশ টিপিপি চুক্তি স্বাক্ষর করে।

চুক্তিতে সদস্য দেশগুলোর মধ্যে দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্যের ক্ষেত্রে বিনা শুল্ক সুবিধার কথা বলা হয় এবং চুক্তির লক্ষ্য ছিল অর্থনৈতিক সম্পর্ক জোরদারের পাশাপাশি প্রবৃদ্ধি বাড়ানো।

ছবির কপিরাইট Getty Images
Image caption অনেকের অপছন্দ ছিল টিপিপি

যুক্তরাষ্ট্র, জাপান, মালয়েশিয়া, অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ড, কানাডা ও মেক্সিকোসহ অন্য আরও দেশের দীর্ঘ আলোচনার পর ২০১৫ সালে চুক্তিটি স্বাক্ষরিত হয়।

তবে দ্বিধাবিভক্ত মার্কিন কংগ্রেস চুক্তিটি অনুমোদন করেনি।

ট্রাম্প কলমের এক খোঁচায় এ চুক্তি ভেস্তে দিয়ে বলেছেন, "আমরা এই মাত্র যা করলাম সেটি আমেরিকান শ্রমিকদের জন্য একটি বিরাট ব্যাপার।"

তিনি সাংবাদিকদের ন্যায্য বাণিজ্য নীতির কথা বলেন, মিস্টার ট্র্যাম্প বলছেন, "এখন অনেকেই বলবে যে, এটা মুক্ত বাণিজ্য হলো না। আমরা আসলে মুক্ত বাণিজ্য করছি না। আমরা এখন থেকে ন্যায্য বাণিজ্যে আগ্রহী। যারা আমাদের সাথে ন্যায় সঙ্গত ভাবে ব্যবসা করতে চায় আমরাও তাদের সাথে সেভাবে ব্যবসা করবো।"

এর আগে ট্রাম্প যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে ব্যবসা করছে এমন কোম্পানিগুলোর কর কমানো এবং নিয়মবিধি হ্রাস করার প্রতিশ্রুতি দেন।

ব্যবসায়ী নেতাদের সঙ্গে এক বৈঠকের পর ট্রাম্প সতর্ক করে দিয়ে এও বলেন যে, যারা যুক্তরাষ্ট্রের বাইরে পণ্য উৎপাদন করবে এবং কর্মসংস্থান সৃষ্টি করবে তাদের ওপর বড় ধরনের সীমান্ত কর আরোপ করা হবে।