হিন্দু রানী ও মুসলিম সম্রাটের 'প্রেম দৃশ্য' নিয়ে ক্ষোভ, হামলায় বন্ধ বলিউড ছবির শুটিং

ছবির কপিরাইট FADEL SENNA
Image caption সঞ্জয় লীলা ভনসালি

মুম্বাইয়ের প্রখ্যাত চলচ্চিত্র পরিচালক সঞ্জয় লীলা ভনসালির ওপরে হামলা চালিয়ে তাঁর একটি নির্মীয়মান ছবির শুটিং বন্ধ করে দিয়েছে স্থানীয় রাজপুত জাতির একটি সংগঠন।

মি. ভনসালির ছবিতে চতুর্দশ শতাব্দীর এক রাজপুত রানীর সাথে একজন মুসলিম সম্রাটের প্রেমের দৃশ্য রয়েছে, এ খবরে গোষ্ঠীটি ক্ষিপ্ত হয়ে এ হামলা চালায়।

শুক্রবার রাতে শুটিং চলাকালীন মি. ভনসালিকে মারধর করার চেষ্টা চালানো হয়। তবে নিরাপত্তা রক্ষীরা তাঁকে ঘিরে রাখায় কয়েকটা চড়-থাপ্পড় আর চুল টেনে দেওয়ার বেশী কিছু করতে পারে নি হামলাকারীরা। শুটিংয়ের যন্ত্রপাতি তছনছও করা হয়।

আলাউদ্দিন খিলজী ও চিতোরগড়ের রানী পদ্মাবতীকে কেন্দ্র করে বলিউডের পরিচালক মি. ভনসালি 'পদ্মাবতী' নামের একটি সিনেমার শুটিং করছিলেন রাজস্থানের জয়পুরে।

হামলাকারীরা কর্নি সেনা নামের 'রাজপুত' একটি গোষ্ঠী বলে জানিয়েছে পুলিশ। তাদের কথায় রানী পদ্মাবতী ও আলাউদ্দিন খিলজীর সম্পর্ককে ভুল ভাবে দেখানো হচ্ছে ওই ছবিতে।

'এই দুই ঐতিহাসিক চরিত্রের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক ছিল' বলে মি. ভনসালি যা দেখাচ্ছেন, সেটা ভুল বলে আখ্যায়িত করে সেইসব দৃশ্য মুছে ফেলারও দাবী জানায় হামলাকারীরা।

আরো পড়ুন : সাতটি মুসলিমপ্রধান দেশের লোকদের আমেরিকায় ঢোকা নিষিদ্ধ করলেন ট্রাম্প

ছেলের আকাঙ্খায় অন্যের শিশু চুরি: এক নারী আটক

মিয়ানমারের রোহিঙ্গা নির্যাতন, সত্য-মিথ্যা এবং অং সান সুচি

ওই সিনেমায় দীপিকা পাডুকোন রাণী পদ্মাবতীর ভূমিকায় আর রণবীর সিং আলাউদ্দিন খিলজীর ভূমিকায় অভিনয় করছেন।

অনেক মানুষ বিশ্বাস করেন যে চিতোরগড়ের রাণী পদ্মাবতীর সৌন্দর্যে আকৃষ্ট হয়ে সেখানকার দূর্গ আক্রমণ করেছিলেন। তবে নিজেদের ইজ্জত বাঁচাতে রাণী পদ্মাবতী সহ দূর্গে থাকা আরও অনেক নারী 'জৌহর' অর্থাৎ আগুনে আত্মাহুতি দিয়েছিলেন।

শুক্রবারের হামলার পরে বলিউড এবং অনেক সাধারণ মানুষ ওই হামলা নিয়ে সামাজিক মাধ্যমে চর্চা শুরু করেছেন।

অভিনেতা ফারহান আক্তার টুইট করে বলেছেন যে 'বারে বারে গায়ের জোর দেখানোর এই চেষ্টার বিরুদ্ধে সবাই মিলে প্রতিবাদ করা উচিত।'

কয়েকজন মন্তব্য করেছেন, 'এটা বলিউডের কাছে পরিষ্কার বার্তা: বিনোদনের নামে ইতিহাস বদলে দিও না।'

কেউ লিখছেন: ভনসালির ওপরে হামলাটা নিন্দাজনক। ভিন্ন মত থাকতেই পারে, কিন্তু পেশীশক্তির প্রদর্শন কখনই মানা যায় না।'

একজন তির্যক মন্তব্য করেছেন: 'সঞ্জয় লীলা ভনসালি সামান্য একটু ইতিহাস বদলেছিলেন, তার জেরে ওরা ভনসালির ভূগোলটাই বদলে দিয়েছে'।

রাজস্থানের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী জি সি কাটারিয়া গোটা ঘটনার নিন্দা করে তদন্তের আশ্বাস দিয়েছেন।

ইতিমধ্যেই পুলিশ ৫জন হামলাকারীকে গ্রেপ্তার করেছে।

সম্পর্কিত বিষয়