বাংলাদেশে স্টার জলসা, স্টার প্লাস, জি বাংলার সম্প্রচার চলবে

স্টার জলসার একটি সিরিয়ালের ছবি
Image caption গত বছরের এক জরিপ অনুযায়ী বাংলাদেশে নারীদের ৯০ শতাংশ টেলিভিশন দেখেন, কিন্তু এদের ৬০ শতাংশই দেখেন স্টার জলসা।

বাংলাদেশে তিনটি ভারতীয় টিভি চ্যানেল স্টার প্লাস, স্টার জলসা ও জি বাংলা বন্ধ করতে যে রিট আবেদন করা হয়েছিল সেটি আজ খারিজ করে দিয়েছে হাইকোর্ট।

এর ফলে বাংলাদেশে এ তিনটি ভারতীয় স্যাটেলাইট চ্যানেল প্রদর্শনে কোনো বাধা নেই বলে জানিয়েছেন আইনজীবীরা।

আজ রোববার বিচারপতি মইনুল ইসলাম চৌধুরী ও বিচারপতি জে বি এম হাসানের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ রিটটি খারিজ করেন।

২০১৪ সালের ৭ আগস্ট সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী সৈয়দা শাহীন আরা লাইলি হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় একটি রিট দায়ের করেন।

যেই রিট আবেদনে বলা হয়েছিল, স্টার প্লাস, স্টার জলসা এবং জি বাংলা ভারতীয় চ্যানেল তিনটিতে এমন সব অনুষ্ঠান প্রচারিত হয় যা বাংলাদেশের সংস্কৃতির সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ নয় এবং এগুলো বাংলাদেশে নেতিবাচক প্রভাব ফেলছে।

এরপর পর ২০১৪ সালের ১৯শে অক্টোবর এক রিট আবেদনের শুনানি শেষে ভারতীয় এই তিন টিভি চ্যানেল বন্ধে নির্দেশ কেন দেওয়া হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেন হাইকোর্ট।

Image caption ভারতীয় এই তিনটি টিভি চ্যানেল বাংলাদেশিদের কাছে অনেক জনপ্রিয় যে সম্প্রতি এগুলোতে বাংলাদেশি পণ্যেরও বিজ্ঞাপন প্রচার হতে দেখা গেছে

ওই সময় বিচারপতি মইনুল ইসলাম চৌধুরী ও বিচারপতি মো. আশরাফুল কামালের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এ রুল জারি করেন।

রিট আবেদনের শুনানির পর তথ্য সচিব, স্বরাষ্ট্র সচিব, বিটিআরসি চেয়ার‍ম্যান, বিটিভির মহাপরিচালক, পুলিশ মহাপরিদর্শক এবং বাংলাদেশে ভারতীয় টিভি চ্যানেল সম্প্রচারের স্বত্বাধিকারী জাদু ব্রডব্যান্ড লিমিটেডের চেয়ারম্যানকে রুলের জবাব দেবার জন্য চার সপ্তাহের জন্য সময়ও বেঁধে দেয়া হয়।

স্টার প্লাস, স্টার জলসা এবং জি বাংলা -আলোচিত ভারতীয় এই তিনটি টিভি চ্যানেল বাংলাদেশি টেলিভিশন দর্শকদের একটি বড় অংশের মধ্যে অত্যন্ত জনপ্রিয়।

গত বছরের এক জরিপ অনুযায়ী বাংলাদেশে নারীদের ৯০ শতাংশ টেলিভিশন দেখেন, কিন্তু এদের ৬০ শতাংশই দেখেন স্টার জলসা।

সম্পর্কিত বিষয়