আমেরিকা যেতে পারছেন ৭ মুসলিম দেশের যাত্রীরা

ছবির কপিরাইট PAUL J. RICHARDS
Image caption প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের আদেশের বিরুদ্ধে বিমানবন্দরগুলোয় বিক্ষোভ

সাতটি মুসলিম দেশের বিমানযাত্রীদের ওপর প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের আরোপিত নিষেধাজ্ঞা একটি আদালত সাময়িকভাবে স্থগিত করে দেবার পর ওইসব দেশের লোকদের এখন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে ঢুকতে দেয়া হচ্ছে।

মার্কিন কাস্টমস কর্তৃপক্ষ বিমান সংস্থাগুলোকে বলে দিয়েছে যেন ওই সাতটি দেশের লোকদের যুক্তরাষ্ট্রগামী বিমানে উঠতে দেয়া হয়।

উপসাগরীয় বিমান সংস্থা কাতার এয়ারওয়েজ বলেছে, তারা এ খবরের সাথে সাথেই বিমানে যাত্রী ওঠানো শুরু করতে যাচ্ছে।

ছবির কপিরাইট Scott Olson
Image caption বিমানবন্দরে একজন বিক্ষোভকারী

এর আগে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প এক নির্বাহী আদেশে সিরিয়া, ইরাক, ইরান, লিবিয়া, সোমলিয়া, সুদান ও ইয়েমেন - এই দেশগুলোর লোকদের যুক্তরাষ্ট্রে ঢোকা নিষিদ্ধ করেন। এর পর গতকাল সিয়াটলের একজন বিচারক ওই আদেশটি সাময়িকভাবে আটকে দেন।

ওই বিচারপতি জেমস রবার্ট তার রুলিংএ বলেন, মার্কিন সংবিধানে কোনো বিশেষ ধর্মের প্রতি পক্ষপাত দেখানো নিষিদ্ধ করে যে ধারা রয়েছে - প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের এই আদেশ তার লংঘন।

মি. ট্রাম্পের সরকার আদালতের এ আদেশে ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেছে, তারা এর বিরুদ্ধে আপীল করবে।

ছবির কপিরাইট Pool
Image caption প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প

হোয়াইট হাউসের একজন মুখপাত্র বলেন, প্রশাসন মনে করে যে এ পদক্ষেপ যথাযথ এবং আইনসঙ্গত ছিল, এবং দেশকে সুরক্ষা দেবার জন্যই প্রেসিডেন্ট এ আদেশ দিয়েছিলেন।

মি. ট্রাম্প এই নিষেধাজ্ঞা আরোপ করার পর বিভিন্ন আদালতে একাধিক মামলা হয়।

এর পর বিভিন্ন দেশের বিমানবন্দরে বিশৃঙ্খল অবস্থা তৈরি হয়, সাতটি দেশের প্রায় ৬০ হাজার যাত্রীর যুক্তরাষ্ট্র যাত্রা বাতিল হয়, এবং আমেরিকার অনেকগুলো বিমানবন্দরে বিক্ষোভ দেখানো হয়।