প্রবীণ রাজনীতিক সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত মারা গেছেন

বাংলাদেশ, সংসদ
Image caption সুরঞ্জিত সেন গুপ্ত

বাংলাদেশের জাতীয় সংসদের আইন, বিচার ও সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি এবং সাবেক মন্ত্রী সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত মারা গেছেন।

আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য ৭৮ বছর বয়সী মিস্টার সেনগুপ্ত ঢাকার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন।

তার ব্যক্তিগত সহকারী কামরুল ইসলাম বিবিসিকে জানিয়েছেন ভোররাত চারটার পর চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

তার নির্বাচনী এলাকা সুনামগঞ্জের দিরাইতে কাল শেষকৃত্য অনুষ্ঠিত হবে।

তিনি স্ত্রী ও এক সন্তান রেখে গেছেন।

দীর্ঘ রাজনৈতিক জীবনে পার্লামেন্টারিয়ান হিসেবে সুখ্যাতি পাওয়া মিস্টার সেনগুপ্ত রাজনৈতিক জীবনের শুরুতে বামধারার রাজনীতিতে যুক্ত হলেও পরে আওয়ামী লীগের সাথে সম্পৃক্ত হন।

Image caption অভিজ্ঞ পার্লামেন্টারিয়ান সুরঞ্জিত সেন গুপ্ত মোট সাতবার সুনামগঞ্জের একটি আসন থেকে জাতীয় সংসদের সদস্য নির্বাচিত হন, ছিলেন বাংলাদেশের সংবিধান প্রণয়ন কমিটির সদস্য

মুক্তিযুদ্ধের পর স্বাধীন বাংলাদেশের সংবিধান প্রণয়ন কমিটির একজন কনিষ্ঠ সদস্য ছিলেন তিনি।

বনার্ঢ্য রাজনৈতিক জীবনের অধিকারী সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত মোট সাতবার সুনামগঞ্জের একটি আসন থেকে জাতীয় সংসদের সদস্য নির্বাচিত হন।

১৯৯৬ সালে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসার পর তাকে প্রধানমন্ত্রী সংসদ বিষয়ক উপদেষ্টার দায়িত্ব দেয়া হয়।

২০০৮ সালের নির্বাচনের কিছুকাল পর তাকে রেলমন্ত্রী করা হলেও পরে তার এক সহকারীর অর্থ কেলেঙ্কারির জের ধরে মন্ত্রীসভা থেকে পদত্যাগ করেন তিনি।

ওদিকে সকালে হাসপাতাল থেকে বেরিয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের সাংবাদিকদের বলেছেন মিস্টার সেনগুপ্ত'র প্রতি শ্রদ্ধা প্রদর্শন ও শেষকৃত্যের সময়সূচী চূড়ান্ত করা হয়েছে তাঁর পরিবারের সাথে আলোচনা করে।

সে অনুযায়ী আজ বিকেল তিনটায় তার মরদেহ সংসদ ভবনে নেয়া হবে এবং কাল তাঁর নির্বাচনী এলাকা দিরাইতে শেষকৃত্য অনুষ্ঠিত হবে।