নারায়ণগঞ্জে সাত খুন মামলায় পলাতক ফাঁসির এক আসামী গ্রেফতার

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত সাবেক র‍্যাব কর্মকর্তা তারেক সাঈদ ছবির কপিরাইট focusbangla
Image caption নারায়ণগঞ্জে আলোচিত সাত খুন মামলায় মৃত্যুদণ্ডাদেশপ্রাপ্ত সাবেক র‍্যাব কর্মকর্তা তারেক সাঈদ

বাংলাদেশের নারায়ণগঞ্জে আলোচিত সাত খুন মামলায় মৃত্যুদণ্ডাদেশ পাওয়া পলাতক এক আসামীকে গ্রেফতার করেছে মাগুরার পুলিশ।

মাগুরার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. তারিকুল ইসলাম বিবিসি বাংলাকে জানিয়েছেন সেনাবাহিনীর চাকরিচ্যুত সার্জেন্ট এনামুল কবিরকে মাগুরা থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

এনামুল কবিরের বাড়ি মাগুরা শালিখা উপজেলার কাতলী গ্রামে। দীর্ঘদিন ধরে তিনি পলাতক ছিলেন।

পুলিশ কর্মকর্তা জানিয়েছেন আজ রবিবার বেলা ১১টার দিকে শহরের ভায়না মোড় এলাকা থেকে শালিখা ও সদর থানা পুলিশের যৌথ একটি দল এনামুল কবিরকে গ্রেফতার করে।

এনামুল কবিরকে আদালতে সোপর্দ করেছে পুলিশ এবং এরপর আদালত তাকে মাগুরা জেলা কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন।

২০১৪ সালের এপ্রিলের ২৭ তারিখ আদালত থেকে ফেরার পথে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের প্যানেল মেয়র নজরুল ইসলামসহ ৫ জন এবং তার আইনজীবী চন্দন সরকার ও মি. সরকারের ড্রাইভারকে অপহরণ করা হয়।

এর তিনদিন পর শীতলক্ষ্যা নদী থেকে তাদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

২০১৪ সালের এপ্রিলের ঐ ঘটনায় সিটি কর্পোরেশনের একজন কাউন্সিলর এবং একজন আইনজীবীসহ সাতজনকে হত্যা করা হয়।

মামলায় অভিযুক্তদের মধ্যে ছিল র‍্যাবের বিভিন্ন পর্যায়ের ২৫ জন সদস্য এবং একজন সাবেক কাউন্সিলর।

হত্যাকাণ্ডের প্রায় তিন বছর পর চাঞ্চল্য সৃষ্টিকারী এই মামলার রায় হয় গত ১৬ই জানুয়ারি।

নারায়ণগঞ্জে আলোচিত ৭ খুন মামলার রায়ে কাউন্সিলর নুর হোসেন এবং সাবেক র‍্যাব অধিনায়ক তারেক সাঈদসহ ২৬ জনকে মৃত্যুদণ্ড দেয়া হয়েছে।

৩৫ জন আসামীর বাকিদের বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড দেয় নারায়নগঞ্জের একটি আদালত।

আরও পড়ুন:

ট্রাম্পের আপিল খারিজ করে দিলো আদালত

যুক্তরাষ্ট্রের এক নারীর কানে আটকা পড়েছিল অজগর

ট্রাম্প-মিডিয়া দ্বন্দ্ব: লাভটা কার?

প্রবীণ রাজনীতিক সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত প্রয়াত

এই খবর নিয়ে আরো তথ্য