৭ দেশের মুসলিমদের যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশে বাধা নেই: আদালত

প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের নিষেধাজ্ঞার পর আমেরিকাজুগে বিক্ষোভ দেখা যায়। ছবির কপিরাইট AFP
Image caption প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের নিষেধাজ্ঞার পর আমেরিকাজুড়ে বিক্ষোভ দেখা যায়।

সাতটি মুসলিম দেশের নাগরিকদের যুক্তরাষ্ট্রে ভ্রমণের ক্ষেত্রে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের জারি করা নিষেধাজ্ঞা পুনর্বহাল করার আপিল খারিজ করে দিয়েছে ফেডারেল আপিল কোর্ট।

মি. ট্রাম্পের দেয়া নিষেধাজ্ঞাকে সাময়িকভাবে স্থগিত করে গত সপ্তাহে আগে যে রায় দিয়েছিল সিয়াটলের একটি আদালত, সেই রায়ই এবারেও সর্বসম্মতিক্রমে বহাল রেখেছেন তিনজন বিচারকের একটি প্যানেল।

তবে সাংবাদিকরা জানাচ্ছেন, সুপ্রিম কোর্ট এ ব্যাপারে পরে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত দেবেন।

আর আপিল খারিজ হবার পর প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প তাঁর টুইটারে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন, লিখেছেন "আদালতে দেখে নেব। আমাদের জাতীয় নিরাপত্তা এখন ঝুঁকির মুখে"।

মুসলিমপ্রধান সাত দেশের নাগরিকদের প্রবেশ নিয়ে ট্রাম্পের আদেশ সাময়িকভাবে স্থগিত করার পর প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প সতর্ক করে বলেছিলেন, এ ধরনের আইনি রুলিংয়ের কারণে যুক্তরাষ্ট্র খারাপ ও বিপজ্জনক মানুষে ভরে যেতে পারে।

এরপরেই ট্রাম্প প্রশাসনের অধীন যুক্তরাষ্ট্রের বিচার বিভাগ আনুষ্ঠানিকভাবে জানায় যে মিস্টার ট্রাম্পের নিষেধাজ্ঞা স্থগিতের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আপিল করা হয়েছে।

ওই আপিলও খারিজ করে দিয়েছিল মার্কিন একটি আদালত।

ট্রাম্প প্রশাসনের আপিলে তাৎক্ষণিকভাবে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা পুনর্বহাল করার আবেদন জানানো হলেও তা অগ্রাহ্য করে বিষয়টি নিয়ে হোয়াইট হাউস ও বিচার বিভাগকে যুক্তিতর্ক উপস্থাপন করার কথা বলেছিল আপিল আদালত। যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষে স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার রায় দিলো ফেডারেল আপিল কোর্ট।

আদালতের এই রায়কে স্বাগত জানিয়েছেন ওয়াশিংটনের অ্যাটর্নি জেনারেল বব ফার্গুসন। তিনি বলেছেন, এই রায় প্রমাণ করে যে যুক্তরাষ্ট্রের আইন প্রেসিডেন্টসহ সবার জন্য প্রযোজ্য।

নিউ ইয়র্কের স্থানীয় সাংবাদিক লাভলু আনসার জানাচ্ছেন রায়ের পর বেশিরভাগ মানুষই স্বস্তি প্রকাশ করেছেন, বিশেষ করে মুসলিমরা।

তিনি জানাচ্ছেন, সুপ্রিম কোর্টে গেলেও এ আইন কোনভাবেই টিকবেনা বলে মনে করা হচ্ছে।

ছবির কপিরাইট Twitter
Image caption প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প টুইট বার্তায় প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন।

সম্পর্কিত বিষয়

এই খবর নিয়ে আরো তথ্য