হোয়াইট হাউজ প্রতিনিধিদের নৈশভোজে যাবেন না ডোনাল্ড ট্রাম্প

ছবির কপিরাইট Getty Images
Image caption প্রেসিডেন্ট হবার আগে ২০১৫ সালে ডোনাল্ড ট্রাম্প এই নৈশভোজে অংশ নিয়েছিলেন।

আমেরিকার প্রেসিডেন্টের বাসভবন হোয়াইট হাউজে নামকরা প্রতিষ্ঠানের সাংবাদিকেদের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা নিয়ে চলছে তুমুল আলোচনা।

এরইমাঝে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প জানালেন এবছর তিনি হোয়াইট হাউজ প্রতিনিধিদের বার্ষিক নৈশভোজেও যোগ দেবেন না।

কিছু মিডিয়া প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে হোয়াইট হাউজের সম্পর্কে যখন ক্রমশ: খারাপের দিকে যাচ্ছে তেমন সময় এলো মি ট্রাম্পের নতুন এই ঘোষণা। শুক্রবার বিবিসি, সিএনএন এবং নিউ ইয়র্ক টাইমস সহ কয়েকটি নামকরা মিডিয়ার প্রতিনিধিদের হোয়াইট হাউজের প্রেস সেক্রেটারি শন স্পাইসারের সংবাদ সম্মেলনে ঢুকতে দেয়া হয়নি ।

এরপর এবার মি ট্রাম্প জানালেন সাংবাদিকদের বার্ষিক নৈশভোজ বর্জনের ঘোষণা। প্রায় শত বছর ধরে সাংবাদিকদের অ্যাসোসিয়েশন এপ্রিল মাসে ওই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে আসছে- যেখানে রাষ্ট্রের প্রধানরা যোগ দেন এবং হালকা মেজাজে কথাবার্তা বলে থাকেন।

এদিকে হোয়াইট হাউসে মার্কিন প্রেসিডেন্টের মুখপাত্রের প্রেস ব্রিফিং থেকে সাংবাদিকদের বাদ দেয়ার এই ঘটনা উদ্বেগ তৈরি করেছে। প্রেসিডেন্টর মুখপাত্র বলছেন, হোয়াইট হাউস মিথ্যে খবর ছড়ানো চলতে দিতে পারে না। সেজন্য এই সিদ্ধান্ত।

অন্যদিকে হোয়াইট হাউজের এই পদক্ষেপের প্রতিবাদে কয়েকটি গণমাধ্যমের সাংবাদিকরা সংবাদ সম্মেলন বর্জন করেন।

নিউইয়র্ক টাইমস এবং সিএনএন এই সিদ্ধান্তকে অগ্রহণযোগ্য বলে আখ্যায়িত করে মার্কিন সংবিধানে সংবাদপত্রের স্বাধীনতার কথা সরকার মনে করিয়ে দিয়েছে। হোয়াইট হাউস সংবাদদাতাদের সংগঠন 'হোয়াইট হাউজ করেসপন্ডেন্টস এসোসিয়েশনের প্রেসিডেন্ট জেফ মেসন এর তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছেন।

সিএনএন এবং নিউইয়র্ক টাইমসের ওপর হোয়াইট হাউস ক্ষুব্ধ বলেই তাদের সেখানে ঢুকতে না দেয়ার কারণ কিনা? সংবাদ সম্মেলনে মি ট্রাম্পের প্রেস সেক্রেটারি শন স্পাইসারকে এই প্রশ্ন জিজ্ঞেস করা হলেও, তিনি তা অস্বীকার করেন।