ব্রিটিশ স্বামী, ২৭ বছরের সংসার, তারপরও দ্বীপান্তরিত

Image caption ব্রিটেনে ২৭ বছরের সংসার আইরিন ক্লেনেলের। সেখানে রয়েছে তার স্বামী, দুই পুত্র ও নাতনি - সবাই ব্রিটিশ।

একজন ব্রিটিশের সঙ্গে সাতাশ বছরের বৈবাহিক সম্পর্ক থাকা স্বত্বেও এক মহিলাকে ব্রিটেন থেকে সিঙ্গাপুরে পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে।

সিঙ্গাপুরের বংশোদ্ভূত আইরিন ক্লেনেলের ব্রিটেনে জন্ম নেয়া দুজন ছেলে এবং একজন নাতনিও রয়েছে।

মিসেস ক্লেনেল তার স্বামীর সঙ্গে ইংল্যান্ডের উত্তর-পূর্বাঞ্চলে বসবাস করতেন, সেখান থেকেই তাকে আটক করে চলতি মাসের গোড়ার দিকে স্কটল্যান্ডের একটি বন্দীশালায় নিয়ে রাখা হয়।

যখন বিয়ে করেছিলেন, তখন মিসেস ক্লেনেলকে ব্রিটেনে থাকার জন্য অনির্দিষ্টকালের অনুমতি দেয়া হয়েছিল।

কিন্তু এক পর্যায়ে বয়স্ক পিতামাতাকে দেখভাল করবার জন্য সিঙ্গাপুরে অবস্থান করার কারণেই সম্ভবত তার রেসিডেন্সিয়াল স্ট্যাটাস বা 'আবাসিক মর্যাদা' বাতিল হয়ে যায়।

অবশ্য মিসেস ক্লেনেল বলেছেন, তিনি বারবার অনুমতি ফেরত পাওয়ার জন্য পুনরাবেদনের চেষ্টা করেছেন।

ব্রিটেনের হোম অফিস এ নিয়ে আলাদা করে কোন মন্তব্য করতে রাজি হয়নি। তবে তারা বলছে, প্রতিটি আবেদনই আলাদা আলাদাভাবে গুরুত্বের সঙ্গে যাচাই বাছাই করেই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

মিসেস ক্লেনেল বিবিসিকে বলেছেন, গত শনিবার সাউথ ল্যানার্কশায়ারের বন্দীশালা থেকে একটি ভ্যানে চড়িয়ে তাকে সরাসরি বিমানবন্দরে নিয়ে যাওয়া হয়।

আটকের পর থেকেই ওই বন্দীশালায় রয়েছেন তিনি।

তিনি বলেছেন, তাকে আইনজীবীর সাথে যোগাযোগ করতে দেয়া হয়নি, এমনকি বাড়িতে গিয়ে পোশাক বদলানোর সুযোগ পর্যন্ত দেয়া হয়নি।

সম্পর্কিত বিষয়