ইউরোপীয়দের ব্রিটেনে থাকার পক্ষে ভোট

বলা হচ্ছে ইইউ ছাড়ার প্রক্রিয়ায় শুরুতেই হোঁচট খেল দেশটির সরকার ছবির কপিরাইট হাউজ অব লর্ডস
Image caption বলা হচ্ছে ইইউ ছাড়ার প্রক্রিয়ায় শুরুতেই হোঁচট খেল দেশটির সরকার

ইউরোপীয় ইউনিয়ন থেকে বেরিয়ে গেলেও, ব্রিটেনে বসবাসরত ত্রিশ লাখের বেশি ইউরোপীয়কে যুক্তরাজ্যে থাকতে দেবার পক্ষে ভোট দিয়েছে দেশটির উচ্চ-কক্ষ, হাউজ অব লর্ডস।

ব্রেক্সিটের পর পার্লামেন্টে একটি বিল পাসের মাধ্যমে ইইউ ছাড়ার প্রক্রিয়ায় শুরুতেই হোঁচট খেল দেশটির সরকার।

প্রধানমন্ত্রী টেরিজা মে বলেছেন, তিনি ব্রিটেনে থাকা ইউরোপীয়দের তিনি আশ্বস্ত করতে চান কিন্তু ইউরোপীয় দেশগুলোতে থাকা ব্রিটিশদেরও একইভাবে সেই সুরক্ষা পাওয়া উচিত।

ব্রিটেনে বসবাসকারী ইউরোপীয় নাগরিকদের সমর্থনে রয়েছে একটি গ্রুপ যার নাম 'দ্য থ্রি মিলিয়ন'।

এই গ্রুপের সহ-প্রতিষ্ঠাতা মেইকি বোন একজন জার্মান নাগরিক, থাকেন ব্রিষ্টলে।

ছবির কপিরাইট গেটি ইমেজেস
Image caption ভবিষ্যতে ইউরোপের একক বাজার নিয়ে সম্ভাব্য দ্বন্দ্ব দেখা দিতে পারে

পার্লামেন্টের এই ভোটকে স্বাগত জানিয়েছেন তিনি। তিনি বলছিলেন, ব্রেক্সিট হওয়ায় আমাদের পৃথিবী ওলটপালট হয়ে গিয়েছিল।

আমাদের অনেকের কয়েক যুগ আগে এখানে এসেছে, এখানেই আমরা বিয়ে-থা করেছি। ব্রিটেনের ভালোমন্দ নিয়ে আমাদের ভাবনা আছে, আমরা এখানে কাজকর্ম করি। অনেকেই নাগরিকও।

কিন্তু ব্রেক্সিটের ফলে আমাদের পরিচিতি হুমকির মুখে পড়েছে।

মিস বোন বলছেন, ইউরোপীয়দের মধ্যে যারা এই মূহুর্তে কাজ করছে না, বা স্থায়ী বসবাসের অনুমতিপত্র পায়নি, তারা আছেন চরম অনিশ্চয়তায়।

আর সেই কারণে হাউজ অব লর্ডসের সিদ্ধান্তকে ইতিবাচক মনে করছেন তিনি।

গত বছর জুনে এক গণভোটে ইইউ থেকে বেরিয়ে যাবার সিদ্ধান্ত নেয় ব্রিটেন। ব্রেক্সিট সিদ্ধান্ত কার্যকর করতে আগামী মাসে ইইউর লিসবন চুক্তির ৫০ ধারা প্রয়োগের মাধ্যমে আনুষ্ঠানিকভাবে ব্রেক্সিট আলোচনা শুরু করবেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী টেরিসা মে।