বাংলাদেশে নির্বাচনী প্রতীক থেকে বাদ পড়লো দাঁড়িপাল্লা

Image caption দাঁড়িপাল্লা প্রতীকটি ন্যায়বিচারের প্রতীক হিসাবে কোন রাজনৈতিক দল, প্রতিষ্ঠান বা ব্যক্তিকে ব্যবহার করতে না দেয়ার জন্য সুপ্রিম কোর্টের ফুল কোর্ট সভায় সিদ্ধান্ত রয়েছে

বাংলাদেশে রাজনৈতিক দলের বা ব্যক্তির নির্বাচনের প্রতীকের তালিকা থেকে বাদ দেয়া হয়েছে দাঁড়িপাল্লা।

জামায়াতে ইসলামী বাংলাদেশ নামের একটি ধর্মভিত্তিক রাজনৈতিক দল এতদিন এই প্রতীকটি তাদের দলীয় প্রতীক হিসাবে ব্যবহার করে আসছিল।

আরো পড়তে পারেন:

হ্যাকিং নিয়ে ঝামেলায় সিআইএ

শরণার্থী হতে গিয়ে জাপানে প্রতারণার শিকার দুই বাংলাদেশি

১১ বছর হাসপাতালে কাজ করেছে ভুয়া ডাক্তার!

কিন্তু এই মনোগ্রামটি ন্যায়বিচারের প্রতীক হিসাবে কোন রাজনৈতিক দল, প্রতিষ্ঠান বা ব্যক্তিকে ব্যবহার করতে না দেয়ার জন্য সুপ্রিম কোর্টের ফুল কোর্ট সভায় সিদ্ধান্ত রয়েছে। হাইকোর্টের রেজিস্টার অফিস থেকে গত ডিসেম্বরে এ বিষয়টি নির্বাচন কমিশন সচিবালয়কেও জানানো হয়।

এরপর কমিশন সভায় প্রস্তাবটি অনুমোদনের পর বিধিমালায় সংশোধন প্রস্তাব আনা হয়। সেটি আইন মন্ত্রণালয়ের ভেটিংয়ের পর গেজেট আকারে প্রকাশ করা হয়েছে।

Image caption বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশনের প্রতীকের তালিকায় এতদিন ৬৫টি প্রতীক থাকলেও এখন থাকছে ৬৪টি

বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশনের প্রতীকের তালিকায় এতদিন ৬৫টি প্রতীক থাকলেও এখন থাকছে ৬৪টি।

২০০৮ সালের ৪ঠা নভেম্বর দাঁড়িপাল্লা প্রতীক নিয়ে নিবন্ধিত হয় জামায়াতে ইসলামী বাংলাদেশ। দলটি অবশ্য এর আগে থেকেই এই প্রতীকে কয়েকবার নির্বাচনে অংশ নিয়েছে। জামায়াতে ইসলামী নতুন কি প্রতীক নেবে, তা জানা যায়নি।

একটি রিটের প্রেক্ষিতে ২০১৩ সালের ১লা আগস্ট দলটির নিবন্ধন অবৈধ ঘোষণা করে হাইকোর্ট। তবে দলটি ওই রায়ের বিরুদ্ধে আপীল করেছে, যার এখনো নিষ্পত্তি হয়নি।

আরো পড়তে পারেন:

নতুন নির্বাচন কমিশন নিয়ে শুরুতেই বিতর্ক কেন?

বিএনপির জন্য নতুন নির্বাচন কমিশন কেন গুরুত্বপূর্ণ?