ইঁদুর মারতে তের কোটি টাকার প্রকল্প

  • ১৩ মার্চ ২০১৭
গল্পের ইঁদুর বিপজ্জনক হয়না, কিন্তু বাস্তবের ইঁদুর জ্বালিয়ে মারছে প্যারিসের মানুষকে ছবির কপিরাইট ডিজনি/পিক্সার
Image caption গল্পের ইঁদুর বিপজ্জনক হয়না, কিন্তু বাস্তবের ইঁদুর জ্বালিয়ে মারছে প্যারিসের মানুষকে

খ্রিষ্টীয় বারো শতকে জার্মানির হ্যামিলন শহরের ইঁদুর তাড়াতে এসেছিল এক বাঁশিওয়ালা। বাঁশির সুরে শহরের ইঁদুর বিদায় করেছিল সে।

কিন্তু আজকের দিনে আর সেই বাঁশিওয়ালা কোথায় পাওয়া যাবে!

তাই ইঁদুর মারতে এবার ১৬ লক্ষ মার্কিন ডলার অর্থাৎ টাকার অংকে প্রায় তের কোটি টাকা খরচ করতে যাচ্ছে ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসের নগর কর্তৃপক্ষ।

এই টাকায় কেনা হবে, ইঁদুর মারার কল আর পরিচ্ছন্নতার যন্ত্রপাতি।

শহরটিতে এই মূহুর্তে মানুষের সংখ্যার দ্বিগুণ ইঁদুরের বাস। ফলে যন্ত্রণায় অতিষ্ঠ নগরবাসী।

ছবির কপিরাইট বিবিসি
Image caption ইঁদুরের উৎপাতে অতিষ্ঠ হয়ে নগরের প্রসিদ্ধ কয়েকটি পার্ক আর বাগান বন্ধ করে দিয়েছে কর্তৃপক্ষ

গত ডিসেম্বরেই নগরের প্রসিদ্ধ কয়েকটি পার্ক আর বাগানও বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।

এখন বাধ্য হয়ে ইঁদুরের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করছে নগর কর্তৃপক্ষ।

জার্নাল দ্যু দিমানশে নামে এক সাপ্তাহিকে দেয়া সাক্ষাৎকারে মেয়র এ্যান হিডালগো বলেছেন, ইঁদুর মারার ফাঁদ কেনা এবং শহরের রাস্তাভর্তি সিগারেটের শেষাংশ পরিষ্কারে এখন নগর কর্তৃপক্ষ ১৬ লক্ষ মার্কিন ডলার ব্যয় করার পরিকল্পনা করেছে।

সেই সঙ্গে, শহরের রেস্তরাঁ এবং আবাসিক ভবনগুলোর প্রবেশ-মুখে আর বেরুনোর পথে বেশি করে এ্যাসট্রে বা ছাইদানি বসানোর জন্য কর্তৃপক্ষকে আদেশ দেয়া হয়েছে।

বলা হচ্ছে, ছাইদানির অভাবে লোকে সিগারেটের শেষাংশ রাস্তায় ফেলে, আর তাতে ইঁদুর বাড়ে।

প্যারিসে অন্যান্য আবর্জনার সাথে বছরে কেবল দেড়শো টন সিগারেটের শেষাংশ কুড়িয়ে ফেলতে হয় পরিচ্ছন্নতা কর্মীদের।