হঠাৎ পাইলটের ঘোষণা 'বিমানের ভেতর সাপ'

আমেরিকায় আলাস্কাগামী এক বিমানের ভেতর সাপ ছবির কপিরাইট AP
Image caption আমেরিকায় আলাস্কাগামী এক বিমানের ভেতর সাপ

আমেরিকার আলাস্কাগামী একটি ফ্লাইটে একটি সাপ পাওয়া গেছে।

আলাস্কার অ্যাঙ্কোরেজগামী একটি যাত্রীবাহী বিমানে ওই সাপটি ফেলে রেখে গিয়েছিলেনে এর আগের ফ্লাইটের এক যাত্রী। ক্যাবিনের ভেতরে নেওয়া সাপটি তার পোষা জীব বলে তালিকাভুক্ত ছিল।

যাত্রীরা বিমানে সাপের কথা প্রথম জানতে পারেন যখন বিমানের পাইলট ঘোষণা করেন, ''যাত্রীগণ- বিমানের ভেতর একটি ছাড়া সাপ আছে, কিন্তু আমরা জানি না সাপটা এখন ঠিক কোথায় আছে।"

হালকা হলুদ রঙের পাঁচ ফুট লম্বা সাপটি বিষাক্ত নয় এবং সেটি প্রথম দেখতে পায় ছোট একটি ছেলে। বসার আসনের উপর ওঠার চেষ্টা করতে গিয়ে সে সাপটি দেখতে পায়।

ছবির কপিরাইট AP
Image caption আসনের নিচে একটি ব্যাগে আংশিক মুড়িসুড়ি দিয়ে ঘুমাচ্ছিল সাপটি

ছেলেটি যখন সাপটি দেখতে পায়, তখন সাপটি ঘুমাচ্ছিল এবং বিমানের পেছন দিকে একটি ব্যাগের ভেতর আংশিক মুড়িসুড়ি দিয়ে সাপটি ছিল।

ছেলেটির মা, অ্যানা ম্যাককনোঘি বলছেন, বিমানের ভেতর অবশ্য এই ঘোষণার পর তেমন ত্রাস তৈরি হয়নি।

তিনি বলেছেন পাইলট বেরিয়ে এসে বিমানের একজন কর্মচারীর সঙ্গে সংক্ষেপে আলাপ করেন কীভাবে সাপটাকে ধরতে হবে।

এরপর বিমানের কর্মী সাপটির পেটের কাছটা ধরে তাকে প্লাস্টিকের ব্যাগে ভরে ফেলেন।

এরপর সাপটিকে বাকি বিমানযাত্রায় তুলে দেওয়া হয় আসনের উপরে মাল রাখার বাক্সে এবং বিমানটি নির্ধারিত সময়ে অ্যাঙ্কোরেজ বিমানবন্দরে অবতরণ করে।

ছবির কপিরাইট AP
Image caption সাপটিকে ধরে প্লাস্টিকের ব্যাগে ভরে ফেলেন বিমানের এক কর্মী

বিমানকর্মীরা সাপটির কথা প্রথম জানতে পারেন যখন নাম না জানা একজন যাত্রী বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষকে জানান তার পোষা একটি সাপ হারিয়ে গেছে।

তিনি জানান তিনি আলাস্কার আরেকটি শহরে বিমান থেকে নামার পর খেয়াল করেন সাপটি তার সঙ্গে নেই। তিনি ধারণা করেন সাপটি সম্ভবত বিমানেই রয়ে গেছে, যেটি তখন ফিরতি উড়ানে অ্যাঙ্কোরেজের পথে ছিল।

বিমানের একজন মুখপাত্র বলেছেন ওই ব্যক্তি সাপটি নিখোঁজ এই খবরটি সময়মত দেবার জন্য তারা কৃতজ্ঞ, তবে তিনি একথাও বলেছেন যে বিমান কর্তৃপক্ষকে আগে থেকে না জানিয়ে বিমানের ভেতর সাপে নিয়ে গিয়ে ঐ যাত্রী এয়ারলাইনের নিয়মনীতি ভঙ্গ করেছেন।

সাপটি কো‌ন্ জাতের বা নিয়ম ভঙ্গের জন্য তার মালিককে কোনো সাজা পেতে হবে কীনা তা ওই কর্মকর্তা জানান নি।

সম্পর্কিত বিষয়