ঢাকা বিমানবন্দরের কাছে 'হামলার' দায় স্বীকার আইএসের

  • ২৪ মার্চ ২০১৭
বিস্ফোরণের পর র‍্যাবের সদস্যরা জায়গাটি ঘিরে রেখেছেন ছবির কপিরাইট STR
Image caption বিস্ফোরণের পর র‍্যাবের সদস্যরা জায়গাটি ঘিরে রেখেছেন

বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকায় শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরের কাছে বোমা বিস্ফোরণে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছে।

পুলিশ বলছে, সন্ধ্যা সোয়া সাতটার দিকে বিমানবন্দরের বাইরে মূল সড়কের গোল চত্বর এলাকায় পুলিশের একটি চেক পোস্টের কাছে এই বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে।

বিমানবন্দর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নূরে আজম মিয়া জানান, নিজের সাথে থাকা বোমা বিস্ফোরনে লোকটি নিহত হয়েছে।

বিবিসিকে তিনি বলেছেন, নিহত ব্যক্তিটির কোমর থেকে উপরের অংশ উড়ে গেছে এবং তার কোমরের কাছে বোমাটি বাঁধা ছিলো।

ইসলামিক স্টেট বা আইএস দাবি করেছে, তারা এই 'হামলাটি' চালিয়েছে। আইএস পরিচালিত একটি ওয়েবসাইট 'আমাক' থেকে এই দায় স্বীকার করা হয়েছে।

ঘটনাস্থল পরিদর্শনের পর পুলিশ কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া বলেছেন, "লোকটি ট্রাভেল ব্যাগ নিয়ে ফুটপাত ধরে যাচ্ছিলো। চেকপোস্টের কিছুটা দূরে থাকতেই লোকটির সাথে থাকার বোমার বিস্ফোরণ ঘটে এবং ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।"

ছবির কপিরাইট STR
Image caption ঘটনাস্থল পরিদর্শন করছে নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা

মি. মিয়া বলেন, "লোকটি বোমা বহন করে কোথাও নেওয়ার চেষ্টা করছিলো। তার বয়স আনুমানিক ৩০/৩২। জিন্সের প্যান্ট ও ফুলহাতা শার্ট পরিহিত ছিলো। তার পরিচয় এখনো পাওয়া যায়নি।"

আরো পড়ুন: লন্ডন হামলাকারীর ছিলো বহু নাম, জেল খেটেছে তিনবার

পুলিশের চেকপোস্ট এড়াতে অতি সতর্কতা অবলম্বন করতে গিয়ে এ বিস্ফোরণ ঘটতে পারে বলে মনে করছেন পুলিশ কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া।

মাত্র এক সপ্তাহ আগেই একই এলাকায় নির্মাণাধীন র‍্যাব সদর দপ্তরে আত্মঘাতী হামলায় একজন নিহত হয়েছিলো। আজকের ঘটনাও তেমন কোন হামলা কি-না এমন প্রশ্নের জবাবে পুলিশ কমিশনার বলেন, "এটি কোন হামলা নয়।"

তিনি বলেন, "সে হামলা করতে চাইলে পুলিশের ওপর হামলা করতে পারতো। কিন্তু তা হয়নি।"

প্রশ্ন উঠেছে এটি বিমানবন্দরে হামলার কোন চেষ্টা হতে পারে কিনা? এই শঙ্কাও উড়িয়ে দিয়েছেন পুলিশ কমিশনার।

এক সপ্তাহ আগের হামলার পর থেকেই বিমানবন্দরে নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছিলো।

তবে আজকের ঘটনার পরপরই মূল সড়ক থেকে বিমানবন্দর এলাকায় ঢোকার পথ থেকেই নিরাপত্তা জোরদারে আরও পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে বিমানবন্দরের নিরাপত্তা নিয়োজিত কর্মকর্তারা।

সম্পর্কিত বিষয়