‘মতি পাগলা’ যে কারণে নগর বাউল
আপনার ডিভাইস মিডিয়া প্লেব্যাক সমর্থন করে না

‘মতি পাগলা’ যে কারণে নগর বাউল

এককালে বাংলাদেশের গ্রামে-গঞ্জে দেখা যেত একতারা হাতে বাউল-ফকিরদের গান শুনিয়ে ভিক্ষা করতে।

আজকাল আর তেমন দেখা যায় না।

কিন্তু বুধবার ঢাকার হাতিরপুলে আহ্‌রার হোসেনের ক্যামেরায় ধরা পড়লেন এক নগর বাউল।

মতিউর রহমান খান তার নাম। সবাই ডাকে ‘মতি পাগলা’।

গ্রামের বাড়ি জামালপুর।

বাঁশের কাজ করতেন। আর মাঝে মাঝে গ্রামের বিভিন্ন অনুষ্ঠানে গান গাইতেন। এই ছিল আয়-রোজগার।

“এখন আর কোমরে কুলায় না, বসে থাকার। কণ্ঠ ভাল আছে, সবাই বলে পাগলা তুমি ঢাকায় যাও। আমার এক দেশী লোক কইল, তুমি আমার এখানে থাইকো, ফুটপাতে গান গাইয়ো, দেখবা লোকে তোমারে চিনব”, বলছিলেন বাউল মতিউর রহমান খান।

এখন ঢাকার পান্থপথে থাকেন তিনি।

বলছিলেন, “এইহানে তিন-চাইরডা গান গাইলাম, আড়াইশ-তিনশ টাকা উইঠা গ্যাছেগা ইনশাআল্লাহ আল্লাহর রহমতে”।

“দশের নড়ি একের বোঝা। এইতো আমার ফুটপাতের জীবন”।

সম্পর্কিত বিষয়