বাণিজ্য ঘাটতি মোকাবেলায় ট্রাম্পের নির্বাহী আদেশ

ছবির কপিরাইট Getty Images
Image caption মি. ট্রাম্প বলছেন, এসব পদক্ষেপের ফলে আবার আমেরিকায় পণ্য উৎপাদনের পরিবেশ ফিরে আসবে

যুক্তরাষ্ট্রের বাণিজ্য ঘাটতি হ্রাস আর বৈদেশিক বাণিজ্যের অপব্যবহার বন্ধে দুইটি নির্বাহী আদেশ জারি করেছেন আমেরিকান প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তিনি এমন সময় এসব আদেশ দিলেন, যখন আর কয়েকদিন পর চীনা প্রেসিডেন্টের যুক্তরাষ্ট্রে আসার কথা রয়েছে।

মি. ট্রাম্প বলছেন, এসব পদক্ষেপের ফলে আবার আমেরিকায় পণ্য উৎপাদনের পরিবেশ ফিরে আসবে। বিশেষ করে দেশটির যে বিশাল বৈদেশিক বাণিজ্য ঘাটতি রয়েছে, বিশেষ করে চীনের সঙ্গে, তা মোকাবেলায়ও সহায়তা করবে।

এর ফলে অর্ধ লক্ষ কোটি ডলারের বাণিজ্য ঘাটতি মোকাবেলা করা সম্ভব হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

'শিশুদের মাঝখানে বসিয়ে আত্মঘাতী বিস্ফোরণ'

এসব আদেশের একটিতে, আমেরিকার বাণিজ্য ঘাটতি পর্যালোচনার নির্দেশ দিয়েছেন মি. ট্রাম্প। অপর আদেশে বৈদেশিক বাণিজ্যের অপবব্যহার আর শুল্ক ব্যবস্থা খতিয়ে দেখা হবে।

মি. ট্রাম্প বলেছেন, তিনি যুক্তরাষ্ট্রের আইনে এমন কিছু কড়াকড়ি আরোপ করতে পারেন, যার ফলে, বিদেশী পণ্য নির্মাতারা আর তাদের পণ্য অন্যায্য দামে আমেরিকায় বিক্রি করতে পারবে না।

সামনের সপ্তাহে চীনের প্রেসিডেন্ট শী জিনপিং এর সঙ্গে বৈঠক করতে যাচ্ছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। তার আগেই এসব আদেশ জারি করা হলো। যদিও ট্রাম্প প্রশাসনের দাবি, চীন তাদের লক্ষ্য নয়।

সম্পর্কিত বিষয়