মৌলভীবাজারের বড়হাটেও অভিযান শেষ: মিললো ৩ জনের লাশ

Image caption মৌলভীবাজারে জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে দুটো বাড়িকে ঘিরে বুধবার ভোর থেকে অভিযান শুরু করে পুলিশ

মৌলভীবাজার শহরের বড়হাট এলাকায় জঙ্গি আস্তানায় পুলিশের অভিযানের পর তিন জঙ্গির মৃতদেহ পাওয়া গেছে।

বেলা বারটার দিকে অভিযানের আনুষ্ঠানিক সমাপ্তি ঘোষণা করেছেন পুলিশের কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের প্রধান মনিরুল ইসলাম।

প্রেস ব্রিফিংয়ে তিনি জানিয়েছেন অভিযানে দুজন পুরুষ আর একজন নারী নিহত হয়েছেন।

মিস্টার ইসলাম বলেন বড়হাটে নিহতদের একজন সিলেটের আতিয়া মহলে পুলিশের অভিযান চলাকালে যে বোমা বিস্ফোরণে র‍্যাবের গোয়েন্দা প্রধানসহ সাতজনের মৃত্যু হয়েছে তার নেতৃত্বে দিয়েছে বলে মনে করছেন তারা।

তার মতে এ অভিযানটি মৌলভীবাজারের নাসিরপুরে জঙ্গিদের বোমা হামলায় র‍্যাবের গোয়েন্দা প্রধানসহ যে সাত জনের মৃত্যু হয়েছে তার একটি প্রকৃতি প্রদত্ত বিচার (ন্যাচারাল জাস্টিস)।

'শিশুদের মাঝখানে বসিয়ে আত্মঘাতী বিস্ফোরণ'

এর আগে শুক্রবার সন্ধ্যায় অভিযান স্থগিতের পর মিস্টার ইসলাম বলেছিলেন যে ঐ বাড়িটিতে যারা অবস্থান করছেন, তারা এরই মধ্যে কয়েকটি বোমার বিস্ফোরণ ঘটিয়েছেন।

তিনি বলেন, যখনই সোয়াটের দল অপারেশন শুরু করতে গিয়েছে, তখনই তারা বিস্ফোরণ ঘটিয়েছে। তাই আমরা ধারণা করছি যে তাদের কাছে প্রচুর বিস্ফোরক রয়েছে।

"এই বাড়িটিতে অপারেশন একটু জটিল, কেননা যে বাড়িটিতে তারা অবস্থান নিয়েছে, সেখানে অনেকগুলো কামরা রয়েছে এবং আরও একটি নির্মাণাধীন বিল্ডিং রয়েছে।"

স্থানীয় সাংবাদিক আব্দুল হামিদ বিবিসিকে জানান আজ শনিবার সকালে অভিযান শুরু করে পুলিশ যার নেতৃত্বে ছিলো সোয়াট টীম।

পড়ে সাড়ে দশটার দিকে অন্তত ২৫/৩০ রাউন্ড গুলির শব্দ শোনা যায় ওই এলাকায়।

পরে ১২ টার দিকে ব্রিফিংয়ে মনিরুল ইসলাম জানান ঘিরে রাখা বাড়িটিতে প্রবেশ করে তারা তিনটি মৃতদেহ পেয়েছেন এবং অগ্নিসংযোগে তাদের মৃত্যু হয়েছে।

আরও পড়ুন :

র‍্যাবের গোয়েন্দা প্রধানের মৃত্যু

'আত্মঘাতী বিস্ফোরণে' নিহতদের চারজনই শিশু

আবারো স্থগিত করা হয়েছে মৌলভীবাজারের অভিযান