ভারতের মানুষ কি আফ্রিকানদের 'ঘৃণা' করে?

ছবির কপিরাইট AFP
Image caption গত মাসে নাইজেরিয়ার শিক্ষার্থীদের উপর হামলা হয়।

সম্প্রতি ভারতের রাজধানী দিল্লীর নাইজেরিয়ার কয়েকজন শিক্ষার্থীর উপর হামলার ঘটনায় ভারতে বসবাসরত আফ্রিকান নাগরিকদের উদ্বিগ্ন করে তুলেছে।

ভারতে অবস্থানরত আফ্রিকান নাগরিকদের উপর হামলা নতুন কোন বিষয় নয়। এর আগেও কয়েকবার এ ধরনের হামলা হয়েছে।

এমন প্রেক্ষাপটে ভারতে বসবাসরত আফ্রিকান শিক্ষার্থীরা প্রশ্ন তুলেছেন ভারতের মানুষজন আফ্রিকানদের আদৌ সহ্য করতে পারি কি না ।

আফ্রিকান শিক্ষার্থীর উপর হামলার ঘটনায় নিন্দা জানিয়েছে ভারতে অবস্থানরত আফ্রিকান দেশগুলো রাষ্ট্রদূতরা।

এক বিবৃতিতে তারা সে হামলাকে 'বর্ণবাদী' হিসেবে আখ্যা দিয়েছে। সে হামলার ঘটনায় ভারতীয় কর্তৃপক্ষ যথেষ্ট নিন্দা করেনি এবং দৃশ্যমান কোন পদক্ষেপ নেয়নি বলে তারা উল্লেখ করেন।

গত মাসে রাজধানী দিল্লীর কাছে আফ্রিকান শিক্ষার্থীদের উপর হামলা হয়।

বিশৃঙ্খল মানুষজন নাইজেরিয়ার পাঁচজন ছাত্রের উপর হামলা করে এবং আরেকজনকে একটি শপিং মলের ভেতরে বেধড়ক পিটিয়েছে।

আরো পড়ুন - হঠাৎ কিভাবে একের পর এক জঙ্গি আস্তানার সন্ধান

মদ্যপ পাইলটকে আট মাসের কারাদণ্ড

ঔষধের মাত্রাতিরিক্ত প্রয়োগের ফলে ভারতীয় এক কিশোরের মৃত্যুর পর এ ঘটনা ঘটে। কারণ শিশুটির বাবা-মা অভিযোগ করে যে নাইজেরিয়ার এক ছাত্র সে ঔষধ দিয়েছিল।

পুলিশ বলছে নাইজেরিয়ার ছাত্রদের উপর হামলার ঘটনায় পাঁচজনকে আটক করা হয়েছে এবং ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ 'নিরপেক্ষ তদন্তের' প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন।

কিন্তু ভারতে নিযুক্ত আফ্রিকান রাষ্ট্রদূতরা বলেছেন, এটা যথেষ্ট নয় এবং তারা জাতিসংঘ মানবাধিকার কাউন্সিলকে বিষয়টি তদন্তের আহবান জানান।

ভারতীয় সরকারের সর্বোচ্চ রাজনৈতিক মহল থেকে এ ঘটনার তীব্র নিন্দা করার জন্য আহবান জানিয়েছেন আফ্রিকান দূতরা।

শপিং মলের ভেতরে নাইজেরিয়ার যে শিক্ষার্থীকে বেধড়ক পেটানো হয়েছে সেটির একটি ভিডিও মোবাইল ফোনে ধারণ করেছিলেন এক ব্যক্তি। পরে সে ভিডিও সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়ে।

সে হামলায় আহত নাইজেরিয়ার শিক্ষার্থী জানিয়েছেন, তাকে রড, ইট এবং ছুরি দিয়ে আঘাত করা হয়েছে। তখন তাকে বাঁচাতে কেউ এগিয়ে আসেনি বলে তিনি উল্লেখ করেন।

নাইজেরিয়ার শিক্ষার্থীরা এমন অভিযোগও করেছেন যে ভারতের মানুষ 'কালোদের ঘৃণা করে"।

এ বিষয়টি নিয়ে অনেক ভারতীয় অনলাইনে নিজেদের বক্তব্য প্রকাশ করেছে এবং বলছে যে এ ঘটনায় তারা লজ্জিত। কিন্তু গত কয়েক বছরে ভারতে অবস্থানরত আফ্রিকান শিক্ষার্থীদের উপর বেশ কয়েকটি হামলার ঘটনা ঘটেছে।

গত বছরের জুলাই মাসে দিল্লীতে একটি অটো-রিক্সার ভাড়াকে কেন্দ্র করে বিবাদের এক পর্যায়ে কঙ্গোর এক নাগরিককে পিটিয়ে হত্যা করা হয়।

সে ঘটনার কয়েকমাস আগে ব্যাঙ্গালোরে তানজানিয়ার এক নারী শিক্ষার্থীর উপর হামলা করে তার জামা ছিঁড়ে ফেলা হয়। ২০১৩ সালে গোয়ায় বসবাসরত নাইজেরিয়ার এক নাগরিককে ছুরিকাঘাত করে হত্যা করা হয়।

সম্পর্কিত বিষয়