জঙ্গলে বানরের সাথে বসবাস করতো যে মেয়েটি

মেয়েটির স্বাস্থ্যের উন্নতি হচ্ছে বলে ডাক্তাররা বলছেন।
Image caption মেয়েটির স্বাস্থ্যের উন্নতি হচ্ছে বলে ডাক্তাররা বলছেন।

ভারতের পুলিশ বলছে, তারা জঙ্গল থেকে এমন একটি শিশুকে উদ্ধার করেছে যে, তাদের সন্দেহ, বানরদের সাথে বসবাস করতো।

উত্তর প্রদেশের এক অরণ্যে মেয়েটিকে খুঁজে পাওয়া যায়।

তার বয়স আট থেকে ১০ বছরে মধ্যে হবে বলে অনুমান করা হচ্ছে।

পুলিশ এখন ঐ এলাকার আশেপাশে নিখোঁজ শিশুদের সম্পর্কে খোঁজ-খবর করছে।

ডাক্তাররা তাকে পরীক্ষা করে বলেছেন, মেয়েটি কোন কথা বলে না, শুধু বানরের মতো কিচির-মিচির করে।

কয়েক সপ্তাহ আগে নেপালের সীমান্ত সংলগ্ন কাতারনিয়াঘাট সংরক্ষিত অরণ্যে একদল বানরের মধ্যে গ্রামবাসীরা যখন মেয়েটিকে প্রথম দেখতে পায়, তখন সে ছিল পুরোপুরি নগ্ন।

সে অপুষ্টিতে ভুগছিল এবং তার দেহে বেশ কয়েক জায়গায় ক্ষত ছিল।

উত্তর প্রদেশ পুলিশের একজন কর্মকর্তা সুরেশ যাদব বিবিসিকে বলেন, তারা যখন মেয়েটিকে উদ্ধার করতে যায়, তখনও সে একদল বানরের সাথে খেলা করছিল।

পুলিশ যখন মেয়েটিকে নিয়ে আসার চেষ্টা করছিল তখন বানররা তাকে ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টা করে।

মেয়েটির নাম রাখা হয়েছে বন দুর্গা।

চিকিৎসার জন্য তাকে লাখনাউয়ের মেডিকেল কলেজে পাঠানো হয়েছে।

অনেকেই মেয়েটিকে রুডিয়ার্ড কিপলিং-এর অমর উপন্যাস 'জাঙ্গল বুক'-এর প্রধান চরিত্র মোগলির সাথে তুলনা করছেন।

তবে মেয়েটি ঠিক কত দিন ধরে বনে বসবাস করেছে সে সম্পর্কে কোন পরিষ্কার ধারণা পাওয়া যায়নি।

আরো দেখুন:

সিরিয়ার বিমান প্রতিরক্ষাকে শক্তিশালী করছে রাশিয়া

কেন সংখ্যায় পিছিয়ে ল্যাটিন আমেরিকার মুসলমানরা

সম্পর্কিত বিষয়