কী আছে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রীর প্রস্তাবে?

দুই প্রধানমন্ত্রীর যৌথ সংবাদ সম্মেলনের পর অনুষ্ঠানে যোগ দেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী ছবির কপিরাইট বিবিসি
Image caption দুই প্রধানমন্ত্রীর যৌথ সংবাদ সম্মেলনের পর অনুষ্ঠানে যোগ দেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী

বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাথে বৈঠকের সময় পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জির তিস্তা চুক্তির পরিবর্তে অন্য চারটি নদীর পানি বণ্টনের প্রস্তাব দিয়েছেন।

এতে তিস্তার বদলে তোর্সা, জলঢাকাসহ উত্তরবঙ্গের কয়েকটি নদীর পানি-বণ্টনের বিকল্প প্রস্তাব দেয়া হয়েছে বলে জানা যাচ্ছে।

শনিবার এক সংবাদ সম্মেলনে মমতা ব্যানার্জি বলেছেন, তিস্তায় পানির অভাবে এনটিপিসির বিদ্যুৎকেন্দ্র বন্ধ হয়ে গেছে।

আশেপাশের জেলাগুলোতে সেচের জন্য পানি পেতে সমস্যা হয়।

আরো পড়তে পারেন: তিস্তা চুক্তি আমার আমলেই হবে: নরেন্দ্র মোদি

কি আছে ভারত-বাংলাদেশের ২২টি চুক্তি এবং সমঝোতায়

কিন্তু উত্তরবঙ্গে তোর্সা, জলঢাকাসহ চারটি নদী আছে, যেখানে পানির প্রবাহ ভালো বলে উল্লেখ করেছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী।

ছবির কপিরাইট ফোকাস বাংলা
Image caption দু দেশের মধ্যে ২২টি চুক্তি এবং সমঝোতা স্মারক সই হলেও তিস্তা নিয়ে চুক্তি হয়নি

ফলে তিস্তার বিকল্প হিসেবে এই চারটি নদীর পানি ব্যবহারের প্রস্তাব দিয়েছেন তিনি।

বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভারত সফরের আগেই জানা গিয়েছিলো তিস্তা চুক্তি হচ্ছে না।

মূলত মমতা ব্যানার্জির আপত্তির কারণেই এই চুক্তি করা সম্ভব হচ্ছে না অনেক দিন যাবত।

কিন্তু এবারের সফরে শেখ হাসিনার সাথে মমতা ব্যানার্জি আলাদা করে বৈঠক করেছেন এবং ঐ বিকল্প প্রস্তাব দিয়েছেন।

এর আগে দুই দেশের প্রধানমন্ত্রীর যৌথ সংবাদ সম্মেলনে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বলেছিলেন, তার সরকারের মেয়াদের মধ্যেই তিস্তা চুক্তি হবে।

বিশ্লেষকেরা বলছেন, এই প্রস্তাবের মাধ্যমে মমতা ব্যানার্জির পূর্বের অবস্থান বদলে নমনীয়তার কিছুটা ইংগিত পাওয়া যাচ্ছে।