নদীতে মিললো যুক্তরাষ্ট্রের প্রথম মহিলা মুসলিম বিচারকের লাশ

  • ১৩ এপ্রিল ২০১৭
ছবির কপিরাইট AFP
Image caption ৬৫ বছর বয়ষ্ক বিচারকের নাম শেইলা আব্দুস সালাম এবং তিনি নিউইয়র্কের সহযোগী বিচারক ছিলেন

একজন প্রত্যক্ষদর্শী নদীতে এক নারীর মৃতদেহ ভাসতে দেখে পুলিশে খবর দেয়।

পরে পুলিশ এসে মৃতদেহ উদ্ধারের পর জানা গেলো এটি যুক্তরাষ্ট্রের প্রথম মহিলা মুসলিম বিচারকের মৃতদেহ।

এর একদিন আগে তার স্বামী পুলিশকে স্ত্রীর নিখোঁজ হওয়ার তথ্য দিয়েছিলেন।

৬৫ বছর বয়ষ্ক বিচারকের নাম শেইলা আব্দুস সালাম এবং তিনি নিউইয়র্কের সহযোগী বিচারক ছিলেন।

তিনি আফ্রিকান আমেরিকানদের মধ্যেও প্রথম মহিলা যিনি বিচারক হয়েছিলেন।

পুলিশ যখন তার মৃতদেহ উদ্ধার করে তখন তার শরীরে কাপড়ে আবৃত ছিলো এবং সেখানেই তাকে মৃত ঘোষণা করা হয়।

আরও পড়ুন:

হাসিনার হেফাজত সংযোগ: ধর্মনিরপেক্ষতার নীতি কি হুমকির মুখে?

'হঠাৎ বিকট শব্দ হলো, এরপর আমরা পড়ে গেলাম'

'এক দশকে বাংলাদেশে বেশি ইসলামীকরণ হয়েছে'

পরে পরিবারের সদস্যরা তার মৃতদেহ সনাক্ত করে, তবে মৃত্যুর কারণ কি তা জানা যাবে ময়না তদন্তের পর।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স নিউইয়ক পোস্টকে উদ্ধৃত করে জানায় যে বুধবার বাড়ি থেকেই নিখোঁজ হন শেইলা।

এরপর অনেক খুঁজলেও তার আর সন্ধান পাওয়া যায়নি।

বার্নার্ড কলেজ ও কলাম্বিয়া ল স্কুল থেকে পড়াশোনা শেষ করে তিনি ইস্ট ব্রুকলিন লিগ্যাল সার্ভিসে তার ক্যারিয়ার শুরু করেন। নিউইয়ক স্টেট অ্যাসিসটেন্ট অ্যাটর্নি জেনারেল হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেন তিনি।

নিউইয়র্ক সিটির বিচারক হওয়ার পর তিনি বিচারবিভাগীয় অনেক গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করেন।

সম্পর্কিত বিষয়