ইসলামপন্থীদের আপত্তি আর পুলিশের নানা বিধিনিষেধে বর্ষবরণ কেমনভাবে পালিত হলো?

  • ১৪ এপ্রিল ২০১৭
বাংলাদেশ, নববর্ষ
Image caption মঙ্গল শোভাযাত্রায় অংশ নিয়েছে অসংখ্য মানুষ

কট্ররপন্থী ইসলামি সংগঠনগুলোর আপত্তি আর পুলিশের নানা বিধিনিষেদের মধ্যে আজ পালিত হলো বাংলা নববর্ষ বরণে নানা অনুষ্ঠান।

এবারের পহেলা বৈশাখ এমন এক সময়ে পালিত হচ্ছে যখন বৈশাখের অন্যতম আকর্ষণ মঙ্গল শোভাযাত্রা পালনে আপত্তি জানিয়েছে ইসলামপন্থী কোন কোন সংগঠন।

আবার যেকোন ধরণের অপ্রীতিকর ঘটনা বা নাশকতা এড়াতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর নানা বিধিনিষেধের পাশাপাশি ছিলো উৎসব এলাকায় কঠোর অবস্থান।

এসব কিছু- ইউনেস্কোর বিশ্ব ঐতিহ্যের স্বীকৃতি পাওয়া এই মঙ্গল শোভাযাত্রা উদযাপনের উপর কতটা প্রভাব ফেলেছে?

আনন্দলোকে মঙ্গল আলোকে বিরাজ সত্য সুন্দর'- এই প্রতিপাদ্য নিয়ে নতুন বছর ১৪২৪ কে বরণ করে নিতে আজ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদ শোভাযাত্রার আয়োজন করে।

ঘোড়া, বিশাল বাঘের মুখ, সমৃদ্ধির প্রতীক হাতি আর টেপা পুতুল- সবাই ছিল মঙ্গল শোভাযাত্রায়।

Image caption বর্ষবরণ: নানা সাজে সজ্জিত মানুষ

সকাল নয়টার দিকে চারুকলা থেকে শুরু হয় কিন্তু নিয়মিত রুট বা পথে অনেকটা সংক্ষিপ্ত করে শুধুমাত্র টিএসসির চত্বরের মধ্যেই সীমাবদ্ধ থাকে এবারের শোভাযাত্রা।

এ নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করলেন বনানী থেকে আসা শারমিন আক্তার বীথি।

গতবছর পহেলা বৈশাখ বরণ করে নেয়ার অপেক্ষাকৃত নতুন এই উৎসবটি ইউনেস্কোর অপরিমেয় বিশ্ব সংস্কৃতি হিসেবে স্বীকৃতি পেয়েছে।

স্বীকৃতির পর এবছর এটি আরো ব্যাপকভাবে পালনের উদ্যোগও ছিল।

কিন্তু এবারের পহেলা বৈশাখের এই মঙ্গল শোভাযাত্রা এমন এক সময়ে হয়েছে যখন ধর্মভিত্তিক কিছু সংগঠনের পক্ষ থেকে আপত্তি এসেছে।

Image caption রমনা বটমূলে ছায়ানটের ঐতিহ্যবাহী বর্ষবরণ

আব্দুর রহিম বাপ্পি সাত বছর ধরে নিয়মিত আসেন।

তিনি বলেন মানুষের মধ্যে এই বিষয়টা নিয়ে আতঙ্ক কাজ করছে।

সন্তোষ সাহা যিনি প্রতিবার আসেন তিনি বলছিলেন এই আপত্তির কারণে মঙ্গলশোভাযাত্রায় মানুষের অংশ গ্রহণ ছিল তুলনামূলক কম।

তবে অনেকে এসেছেন এই উৎসবের আয়োজনে সামিল হতে স্বত:স্ফুর্তভাবে। সাইফুর রহমান তাদের মধ্যে একজন। স্ত্রী ও সন্তান নিয়ে এসেছেন।

মঙ্গল শোভাযাত্রা এবছর ২৮ বছরে পা দিলো। শোভাযাত্রার সামনে তিন স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা ছিল চোখে পড়ার মত। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কঠোর অবস্থানকে অনেকে অসুবিধা হিসেবেই উল্লেখ করলেন।

Image caption এমন বেশ কিছু চেকপোস্ট আর তল্লাশি গেট পেরিয়ে মানুষকে অনুষ্ঠানস্থলে যেতে হয়েছে

যদিও আয়োজকরা এই মঙ্গল শোভাযাত্রাকে সফল হিসেবেই দেখছেন।

যদিও পহেলা বৈশাখের অন্যতম আকর্ষণ এই শোভাযাত্রায় আয়োজন, উৎযাপন ও পরিবেশ নেয়ে কোথায় যেন একটা অস্বস্তি লক্ষ্য করা গেছে উৎসব আসা মানুষদের মাঝে।