ছাত্ররাই তছনছ করেছে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে চারুকলা ইন্সটিটিউটের পাঁচ শতাধিক ভাস্কর্য

  • ১৮ এপ্রিল ২০১৭
সকালে এসে দেখা যায় ছড়িয়ে পড়ে আছে ভাস্কর্যগুলো ছবির কপিরাইট আনোয়ার আলী হিমু
Image caption সকালে এসে দেখা যায় ছড়িয়ে পড়ে আছে ভাস্কর্যগুলো

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে চারুকলা ইন্সটিটিউটের শিক্ষার্থীদের বানানো পাঁচ শতাধিক ভাস্কর্য তছনছের ঘটনায় সাতজন জড়িত বলে চিহ্নিত করেছে কর্তৃপক্ষ।

অ্যাকাডেমিক বিভিন্ন বিষয়ে ক্ষোভ থেকে চারুকলার সাতজন শিক্ষার্থী এ কাজ করেছেন বলে কর্তৃপক্ষ জানতে পেরেছেন।

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা ইন্সটিটিউটের সিরামিক অ্যান্ড স্কালপচার বিভাগের চেয়ারম্যান মোস্তফা শরীফ আনোয়ার বিবিসি বাংলাকে বলেছেন, ক্লাশ, প্রদর্শনী এবং নিজেদের কাজ সংরক্ষণের জন্য পর্যাপ্ত জায়গা নেই--এমন বেশ কিছু অভিযোগ শিক্ষার্থীদের আছে। কিন্তু সেজন্য ভাস্কর্য নষ্ট করে তারা ঠিক কাজ করেনি।

কারণ তারা যেসব ভাস্কর্য নষ্ট করেছে, তার সবগুলো তাদের নিজেদের সৃষ্টিকর্ম নয়। ওগুলোর মধ্যে পুরনো শিক্ষার্থীদেরও অনেক কাজ আছে।

আরো পড়ুন:রাজশাহী চারুকলায় কয়েকশো ভাস্কর্য তছনছ

তাছাড়া অধ্যাপক আনোয়ার বলছেন, ঐ শিক্ষার্থীরা কখনো নিজেদের অভিযোগ কিংবা দাবী লিখিতভাবে শিক্ষকদের জানাননি।

এখন এই ঘটনার ব্যাপারে এবং ঐ সাতজন শিক্ষার্থীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার জন্য বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের কাছে লিখেছেন বলে জানিয়েছেন তিনি।

ছবির কপিরাইট আনোয়ার আলী হিমু
Image caption ভাস্কর্যগুলো ক্লাসরুমের বাইরে সংলগ্ন খোলা জায়গায় রাখা ছিল

এর আগে রাজশাহীর সাংবাদিক আনোয়ার আলী হিমু বিবিসি বাংলাকে জানিয়েছেন, আজ সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন কর্মচারী চারুকলা ইন্সটিটিউটে এসে দেখতে পান যে, শিক্ষার্থীদের বানানো কয়েকশো ভাস্কর্য, যেগুলো ক্লাসরুমের পাশেই খোলা জায়গায় রাখা ছিল, সেগুলো উপড়ে এলোপাথাড়িভাবে মাটিতে ছড়ানো ছিটানো অবস্থায় ফেলে রাখা হয়েছে।

এছাড়া কিছু ফেলে রাখা হয়েছে শিক্ষকদের রুমের সামনে।

পরে ঐ কর্মচারী শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের খবর দেন।

ধারণা করা হচ্ছে, সোমবার রাতে এ ঘটনা ঘটানো হয়েছে।

ঘটনার প্রতিবাদে সকাল থেকে বিক্ষোভ করেছেন শিক্ষার্থীরা।