আফগানিস্তানের মাজার-ই-শরিফের সেনা ঘাঁটিতে তালিবানের হামলায় হতাহত হয়েছে শতাধিক সেনা

ছবির কপিরাইট Reuters
Image caption মাজার-ই-শরিফের সেনা ঘাঁটির প্রবেশপথ

আফগানিস্তানের মাজার-ই-শরিফে এক সামরিক ঘাঁটিতে তালিবান যে আত্মঘাতী হামলা চালিয়েছে, তাতে হতাহতের সংখ্যা একশোরও বেশি।

গতকালের ওই হামলায় নিহতের সংখ্যা এর আগে ১৩৪ জন বলে দাবি করা হচ্ছিল। কিন্তু আজ আফগান প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানাচ্ছে হতাহত সেনার সংখ্যা শতাধিক। তবে ঠিক কতজন নিহত হয়েছেন, সেই সংখ্যা বলা হয় নি।

এই হামলার সময় কয়েকজন তালিবানও নিহত হয়। আফগানিস্তানে তালিবান হামলায় এক সঙ্গে এত বিপুল সংখ্যাক সরকারী সেনা হতাহত হওয়ার ঘটনা সাম্প্রতিক সময়ে দেখা যায়নি।

আফগান সেনাবাহিনির একজন মুখপাত্র নাসরাতুল্লাহ জামশিদি জানিয়েছেন, গতকাল মাজার ই শরিফের সেনাঘাঁটিতে শুক্রবারের জুমার নামাজ শেষে সৈন্যরা যখন বেরিয়ে আসছিলেন তখনই সেখানে জঙ্গীরা হামলা চালায়। এছাড়া আরেকটি ক্যান্টিনেও হামলা চালানো হয়।

বিবিসি বাংলায় আরো পড়ুন:

বাংলাদেশের জনপ্রিয় শিল্পী লাকী আখন্দের মৃত্যু

গ্রিক মূর্তি অপসারণ প্রশ্নে ইসলামী দলগুলোর ঐক্য?

ছবির কপিরাইট বিবিসি
Image caption মাজার-ই-শরিফ মানচিত্রে

অন্তত দশ জন তালিবান জঙ্গী হামলার সময় নিহত হয়।

মাজার-ই-শরিফের এই সেনাঘাঁটি আফগান বাহিনীর খুবই গুরুত্বপূর্ণ ঘাঁটি গুলোর একটি। কুন্দুজ প্রদেশসহ পুরো উত্তরাঞ্চলের নিরাপত্তার দায়িত্বে রয়েছে এখানে মোতায়েন সেনা ইউনিটগুলো।

এরকম সুরক্ষিত সেনা ঘাঁটিতে যেভাবে তালিবান সফল হামলা চালালো, তাতে সেখানকার নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে।

তালিবান যে খুবই জটিল ধরণের হামলা চালাতে সক্ষম, এটা তারাই প্রমাণ।

তালিবান দাবি করছে, হামলাকারীদের চারজন ছিল সাবেক সৈনিক, কাজেই সেনাঘাঁটির সবকিছু ছিল তাদের নখদর্পণে।

সম্পর্কিত বিষয়