ব্রিটেনে বোরকা নিষিদ্ধের প্রতিশ্রুতি অভিবাসন-বিরোধী দল ইউকিপের

  • ২৩ এপ্রিল ২০১৭
ছবির কপিরাইট Christopher Furlong
Image caption ব্রিটিশ মুসলিম মহিলা

ব্রিটেনে ৮জুনের নির্বাচনকে সামনে রেখে অভিবাসন বিরোধী দল ইউকে ইন্ডিপেন্ডেন্স পার্টি বা ইউকিপ সোমবার তাদের নির্বাচনী ম্যানিফেস্টো বা ইশতেহার ঘোষণা করবে।

তার আগের দিন দলের নেতা পল নাটাল বিবিসিকে বলেছেন, তাদের ইশতেহারে মুসলিম মহিলাদের বোরকা বা নিকাব নিষিদ্ধ করার প্রতিশ্রুতি থাকবে। কেউ না মানলে, জরিমানা করা হবে।

তিনি বলেন জনসমক্ষে বোরকা নিরাপত্তা ঝুঁকি তৈরি করছে। "ব্রিটেনে এখন নিরাপত্তা ঝুঁকি অনেকে বেড়েছে, কিন্তু মুখ ঢাকা থাকলে সিসিটিভিতে তো তাকে সনাক্ত করা যাবেনা।"

"আমি তো মুখোশ পরে বা মাথা-মুখ ঢাকা হেলমেট পরে ব্যাংকের ঢুকতে পারবো না.. আমি যদি না পারি, অন্যরা যদি না পারে, তাহলে কোনো একটি সম্প্রদায়ের জন্য ব্যতিক্রমী কেন হবে।"

তাছাড়া, মি নাটালের কথায়, বোরকা মুসলিম নারীদের ব্রিটিশ সমাজের মূলধারায় সম্পৃক্ত হওয়ার পথে বাঁধা তৈরি করছে। তিনি বলেন, ব্রিটেনে ৫৮ শতাংশ মুসলিম নারীরা যে অর্থনৈতিকভাবে পিছিয়ে, তার অন্যতম কারন বোরকা।

ফ্রান্স সহ ইউরোপের বেশ কয়েকটি দেশে জনসমক্ষে বোরকা নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

ছবির কপিরাইট Carl Court
Image caption ইউকিপ নেতা পল নাটাল

বোরকা নিষিদ্ধের পাশাপাশি, ইউকিপ নেতা বলেন, ব্রিটেনে এখন মূল আইনের সমান্তরালে মুসলিম শারিয়া আইনের প্রয়োগ হচ্ছে। তার দল জিতলে তা বন্ধ করে দেওয়া হবে।

"এ দেশে এমন কোনো আদালত বা পরিষদ থাকতে পারেনা যেখানে নারীদের কথার দাম পুরুষের অর্ধেক। একটি উদার, গণতান্ত্রিক পশ্চিমা দেশে এটা চলতে পারেনা।।"

শারিয়া আদালত নিষিদ্ধের কথা বললেও রক্ষণশীল ইহুদি সমাজে প্রচলিত ধর্মীয় আদালতের বিরুদ্ধে কথা বলতে অস্বীকার করেন ইউকিপ নেতা। তিনি বলেন - ইহুদিদের এসব ধর্মীয় আদালত শত শত বছর আগে তৈরি হয়েছে , এবং কট্টর রক্ষণশীল ইহুদির সংখ্যাও কমে যাচ্ছে।"