রক্তের গ্রুপের সাথে হার্ট অ্যাটাকের সম্পর্ক কতটা?

ছবির কপিরাইট Science Photo Library
Image caption রক্তের প্রুপ হৃদরোগ নির্ণয়ের জন্য একটি সহায়ক বিষয় হতে পারে।

যাদের রক্ত 'ও' গ্রুপের নয় তাদের হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকি কিছুটা বেশি। সাম্প্রতিক গবেষণায় এ তথ্য পাওয়া গেছে। গবেষকরা বলছেন, যাদের 'ও' গ্রুপের রক্ত তাদের হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকি অন্যদের তুলনায় সামান্য কম।

বিজ্ঞানীরা মনে করেন যাদের রক্তের গ্রুপ 'এ', 'বি' এবং 'এবি' গ্রুপের তাদের শরীরে রক্ত জমাট করার প্রোটিনের উপস্থিতি বেশি।

গবেষকরা বলছেন, এ ধরনের গবেষণা ফলাফলের মাধ্যমে ডাক্তারদের বুঝতে সুবিধা হবে যে কারা হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে।

ইউরোপিয়ান সোসাইটি অব কার্ডিওলজি কংগ্রেসে এ গবেষণাটি উপস্থাপন করা হয়। প্রায় ১৩ লাখ মানুষের উপর গবেষণা চালিয়ে এ প্রতিবেদন তৈরি করা হয়েছে।

গবেষণায় দেখা গেছে যাদের রক্তের গ্রুপ 'ও' নয় তাদের ১০০০ জনের মধ্যে ১৫ জন হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকিতে থাকে। অন্যদিকে যাদের রক্ত 'ও' গ্রুপের তাদের ১০০০ জনের মধ্যে ১৪জন হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকিতে থাকে। পার্থক্যটি সামান্য হলেও সার্বিক জনসংখ্যার বিচারে এ সংখ্যা অনেক বেশি।

আরো পড়ুন

স্বামীর নির্যাতন ঠেকাতে বিয়েতে কাঠের ব্যাট উপহার

কিন্তু হার্ট বিষয়ে কাজ করে এমন একটি দাতব্য সংস্থা মনে করে, মানুষ যাতে ধূমপান বর্জন করে স্বাস্থ্যসম্মত খাবারের দিকে বেশি মনোযোগ দেয় সেদিকে লক্ষ্য রাখা দরকার।

এর আগে এক গবেষণায় উঠে এসেছিল যে যাদের 'এবি' রক্তের গ্রুপ আছে তাদের হৃদরোগের ঝুঁকি অন্যদের তুলনায় ২৩ শতাংশ বেশি।

তবে রক্তের গ্রুপ ছাড়াও হার্ট অ্যাটাকের আরো কিছু কারণ রয়েছে। এগুলোর মধ্যে রয়েছে ধূমপান, অতিরিক্ত ওজন এবং অস্বাস্থ্যকর জীবনযাপন। গবেষকরা বলছেন, রক্তের গ্রুপ নিয়ে কিছু করার না থাকলেও স্বাস্থ্যসম্মত জীবনযাপনের মাধ্যমে হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকি কমিয়ে আনা সম্ভব।

এ গবেষণার সাথে যুক্ত টিসা কোল বলছেন, যাদের রক্ত 'ও' গ্রুপের নয় তাদের মধ্যে হৃদরোগের ঝুঁকি কেন বাড়ছে সে বিষয়ে আরো গবেষণা দরকার।

তবে বড় ধরণের হৃদরোগের ক্ষেত্রে রক্তের গ্রুপ তেমন কোন পার্থক্য তৈরি করেনা বলে গবেষণায় উল্লেখ করা হয়েছে।

সম্পর্কিত বিষয়