মাঠে ময়দানে
আপনার ডিভাইস মিডিয়া প্লেব্যাক সমর্থন করে না

ক্রিকেটারদের গায়ে স্পন্সরদের বিজ্ঞাপন কি বাড়াবাড়ি রকমের বেশি?

  • ১ মে ২০১৭

আইপিএল-এ বা যে কোন টি২০ টুর্নামেন্টেই খেলোয়াড়দের শার্টে যেসব স্পন্সর কোম্পানির লোগো থাকে তার সংখ্যা কি এখন বাড়াবাড়ি রকমের বেশি হয়ে গেছে?

আজকাল দেখা যাচ্ছে, ক্রিকেটারদের বুকে-পিঠে-কাঁধে-মাথায় সর্বত্রই বিচিত্র সব কোম্পানির লোগো । তার সংখ্যা এত যে খেলোয়াড়দের নাম - যা আগে পিঠে লেখা থাকতো - তা এখন থাকে কোমরের কাছাকাছি।

টি২০ টুর্নামেন্টগুলোতেই এগুলো বেশি দেখা যাচ্ছে - তা সে আইপিএলই বলুন, আর অস্ট্রেলিয়ার বিগ ব্যাশ বা বাংলাদেশের বিপিএলই বলুন ।

ক্রিকেট খেলায় স্পন্সর বা বিজ্ঞাপনাদাতাদের নামের ছড়াছড়ি নতুন নয়, আগেও থাকতো।

ছবির কপিরাইট DIBYANGSHU SARKAR
Image caption আইপিএলে এখন খেলোয়াড়দের গায়ে স্পন্সরদের লোগের ছড়াছড়ি

ক্রিকেটে টাকা আসতে শুরু করার পর প্রথমদিকে থাকতো মাঠের চার পাশে বা ঘাসের ওপর, এর পর খেলোয়াড়দের শার্ট, ব্যাট, উইকেট, সাইটস্ক্রিনেও দেখা যেতে লাগলো স্পন্সরের নাম।

আর এখন আইপিএলে দেখুন - স্পন্সর কোম্পানির লোগো এখন থাকে খেলোয়াড়দের শার্টে শুধু বুকের ওপর নয়, পিঠে, কাঁধে , সর্বত্র ।

এ নিয়ে ক'দিন আগে বিবিসি'র ক্রিকেট ম্যাগাজিনে বিরক্তি প্রকাশ করে একজন সাংবাদিক এ্যালিসন মিচেল বলছেন, "আইপিএলে অনেক খেলোয়াড় আছে যারা ঘরোয়া ক্রিকেট থেকে আইপিএলে খেলতে এসেছে। আমি তাদের নাম জানতে চাই - কিন্তু তার শার্টে তার নামটাই দেখতে পাই না, দেখছি লেখা আছে জেপি সিমেন্টস, বা ডি জে ফেন্সিং বা অন্য কিছু । দয়া করে - খেলোয়াড়দের নামটা শার্টের পিঠে দিন, তার কোমরের কাছাকাছি নয়। ক্রিকেট ভক্তরা তাদের প্রিয় খেলোয়াড়ের নাম দেখতে চায়। বুকে-পিঠে-কাঁধে এই স্পন্সরদের নামগুলো কি বাদ দেয়া যায় না? "

ছবির কপিরাইট AFP
Image caption আইপিএলে বিপণনের জন্য কোটি কোটি রুপি খরচ হয়

কিন্তু ক্রিকেটে বিশেষ করে আইপিএলের মতো তারকাসমৃদ্ধ টুর্নামেন্টে এখন এত টাকার ছড়াছড়ি যে এসব কথাবার্তা কেউ কানে তুলছেন না।

ক্রিকেটে বিপণন কত গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠেছে, খেলোয়াড়দের গায়ে কেন এত লোগোর ছড়াছড়ি এবং তার পেছনে কত কোটি টাকার বাণিজ্য - তা নিয়ে বিশ্লেষণ করেছেন ক্রিকেটে ইতিহাসবিদ বোরিয়া মজুমদার।

তিনি বলছেন, এখানে এত বেশি টাকা বিনিয়োগ হচ্ছে যে কোন আপত্তিতেই লাভ হবে না। এটাই ক্রিকেটের ভবিষ্যৎ।

বোরিয়া মজুমদারের বিশ্লেষণ শুনুন এবারের মাঠে ময়দানেতে।

ছবির কপিরাইট Getty Images
Image caption ইংলিশ উইলোর ব্যাট তৈরি হচ্ছে একটি কারখানায়

ক্রিকেট ব্যাটের জন্য ইংলিশ উইলোই কে এখনো সেরা?

ক্রিকেটের ব্যাট আগে তৈরি হতো ইংল্যান্ডের উইলো কাঠ দিয়ে। এখন পাকিস্তান আর ভারতেও উৎকৃষ্ট ব্যাট তৈরি হচ্ছে।

যারাই একটু আধটু ক্রিকেট খেলেছেন, তাদের অনেকেই জানেন ক্রিকেট ব্যাট তৈরি হয় উইলো গাছের কাঠ দিয়ে।

অনেক দিন ধরেই একটা কথা প্রচলিত আছে যে, ইংল্যান্ডের উইলো হচ্ছে ব্যাট বানানোর জন্য সবচেয়ে ভালো।

ছবির কপিরাইট Oli Scarff
Image caption ইংল্যান্ডের এসেক্সে ব্যাট তৈরির জন্য কেটে আনা হয়েছে উইলো গাছের কান্ড

আসলে ইংল্যান্ডে ই ক্রিকেট খেলার জন্ম, তাই শুরুতে ব্যাটও তৈরি হতো সেখানেই।

এখন অবশ্য পাকিস্তানে আর ভারতের উত্তরাঞ্চলে ব্যাট তৈরির বহু কারখানা গড়ে উঠেছে, সেখান থেকে ব্যাট বিদেশে রপ্তানিও হচ্ছে। সেখানে ব্যবহার হয় কাশ্মিরী উইলোর কাঠ।

কিন্তু দাম এবং মানের দিক থেকে এখনো ইংলিশ উইলো দিয়ে তৈরি ব্যাটই সবার উপরে, এমন্টাই মনে করেন অনেকে।

ইংলন্ডের এমনি একজন ব্যাট নির্মাতার কারখানা দেখতে গিয়েছিলেন বিবিসির সাইমন পার্কার।

তার রিপোর্ট শুনবেনএবারের মাঠে ময়দানেতে।

মাঠে ময়দানের এ পর্বটি পরিবেশন করেছেন পুলক গুপ্ত।

সম্পর্কিত বিষয়